চিংড়ি বিরিয়ানি

জন্মদিন থেকে বিয়ে বাড়ি এখন মধ্যমণি বিরিয়ানি। পাড়ার মোড় থেকে বড় বড় রেস্তোরাঁ বিরিয়ানি অল টাইম হিট। কিন্তু সেই বিরিয়ানি যদি হয় আপনার হেঁসেলে? কি ভাবছেন নাকি? একদিনে নিজে হাতে বিরিয়ানি রান্না করে চমকে দেবেন বন্ধুদের। তা দিতেই পারেন। কিন্তু চিকেন, মটন নয় এবার বন্ধুদের চমকে দিন চিংড়ি বিরিয়ানির স্বাদে। জেনে নিন কি করে রাঁধবেন:

উপকরণ:

  • বাসমতি চাল ৫০০ গ্রাম
  • এলাচ ৮ টি
  • ৪ টে বড় চিংড়ি ৪ টি
  • ঘি ৪ টেবিল চামচ
  • পেয়াজ বড় সাইজের দুটি
  • টম্যাটো একটি
  • ধনে গুড়ো ২ চামচ
  • লঙ্কা গুড়ো স্বাদ অনুযায়ী
  • লবঙ্গ
  •  এলাচ
  • জয়িত্রী গুড়ো ৫০ গ্রাম করে
  • তেজপাতা ৪ টি
  • নুন পরিমাণ মতো
  • দুধে ভেজানো কেশর
  • অল্প গোলাপ জল

প্রণালী:

  • প্রথমে বাসমতি চাল ৩০ মিনিট জলে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর চাল ভেজানো জলে ১ চামচ নুন ও এলাচ মিশিয়ে ৫ মিনিট ফোটান। ভাত অর্ধেক সেদ্ধ হয়ে গেলে ভালো করে ফ্যান গেলে নিনি।
  • এরপর চিংড়ির খোসা ছাড়িয়ে ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিয়ে একটু ভাপিয়ে নিন।
  • একটি ডেকচিতে ৪ চামচ ঘি গরম করুন । তারমধ্যে তেজপাতা এবং গরম মশলা ফোড়ন দিন।
  • তারপর চিংড়ি গুলি দিয়ে ভালো করে ভেজে তুলেনিন।
  • ঐ তেলে পেয়াজ কুচি, টম্যাটো, ধনে গুড়ো, লঙ্কা গুড়ো আন্দাজমতো নুন ও গোলমরিচ দিয়ে কষুন। কষা হয়ে গেলে তাতে জল দিয়ে দিন। জল ফুটে উঠলে চিংড়ি মাছ দিয়ে দিন।
  • এবার একটি ডেকচিতে অর্ধেকটা ভাতের আস্তরণ দিন, তার উপর  ২ টি চিংড়ি ও গ্রেভিটা দিন। দুধে ভেজানো কেশর ও গোলাপ জল ছড়িয়ে দিন। বাকি ভাতটা তার ওপর দিন। অন্য চিংড়ি ও বাকি গ্রেভিটা দিন। তার ওপরে গোলাপ জল ও কেওড়ার জল, কেশর জল ছড়িয়ে দিন।
  • পাত্রের মুখ ঢাকা দিয়ে ঢাকার ফাঁকটা ময়দা দিয়ে আটকে দিন। ১৫ মিনিট দমে রাখুন।
  • হয়ে গেলে গরম গরম পরিবেশন করুন।

 

----
-----