নয়াদিল্লি: দেশে আর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া উচ্চবর্ণের জন্য শিক্ষা এবং সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ সংরক্ষণের যে প্রস্তাব এনেছিল বিজেপি সরকার, তা পাশ হয়ে যায় লোকসভা এবং রাজ্যসভায়৷ আর শনিবার এই বিলেই শীলমোহর দিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দ৷

সংবাদ সংস্থা এএনআই-এ প্রকাশিত খবর থেকে জানা যায়-

লোকসভার আগে আর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া উচ্চবর্ণের জন্য মোদী সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণাকে অনেকেই মাস্টারস্ট্রোক বলে মনে করছে৷ শিক্ষা থেকে চাকরি উভয়ক্ষেত্রেই এই সংরক্ষণ থাকবে। গত বুধবার রাজ্যসভায় ১৬৫টি ভোট পড়ে এই বিলের সমর্থনে। সাতটি ভোট পড়ে বিপক্ষে।

আট লক্ষের কম রোজগার আছে, এমন উচ্চবর্ণের নাগরিকরাই এই সুবিধা পাবেন। গত মঙ্গলবার লোকসভায় এই সংক্রান্ত বিল পাস হয়। লোকসভায় ৩২৩ টি সমর্থনে পাস হয় সেই বিল।

সম্প্রতি পাঁচ রাজ্যের ভোটের ফলাফলে যে ছবি উঠে এসেছে, তাতে কিছুটা হলেও চিন্তায় গেরুয়া শিবির। তাই বিশেষজ্ঞমহলের মতে, সাধারণ মানুষকে একটা কোনও চমক দিতেই হত মোদী সরকারকে। সেইজন্যই হয়ত তড়িঘড়ি এই গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত।

১২ জানুয়ারি, শনিবার দেশের উন্নয়ন সংক্রান্ত মোদীর বার্তাকে, ১০শতাংশ সংরক্ষণ বিলে রাষ্ট্রপতির শীলমোহর যে আরও শক্তপোক্ত করল তেমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহল৷

--
----
--