কলকাতা: সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে দিল্লিতে মুকুল রায় সাংবাদিক বৈঠক করার পরই তৃণমূল ভবনে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সাংবাদিক বৈঠক। বললেন, মুকুলের কথার কোও মূল্য নেই।  এতদিন পর কেন বোধোদয় হল?

মুকুল দলে জমিদারী চালাতেন। এই ভাষাতেই আক্রমন করলেন দলের মহাসচিব। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুকুল রায়ের আক্রমণের জবাবে পার্থ বললেন, ‘মমতা নেত্রী। আমরা দলের সহকর্মী। ‘ মুকুল রায়কে কাঁচড়াপাড়ার কাঁচরা বাবু বলে কটাক্ষ করেন তিনি। ‘মুকুলের মত গদ্দারি কেউ করেনি’, এমনই মন্তব্য করেন তিনি।

Advertisement

আরও পড়ুন: হৃদয়ে গভীর যন্ত্রণা নিয়ে ইস্তফা দিলাম: মুকুল

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগ, ছ’মাস ধরে নাটক করছেন মুকুল রায়। সিবিআই যেদিন মুকুলকে জেরা করতে শুরু করল, সেদিন থেকেই বিজেপির সঙ্গে তলে তলে যোগাযোগ রাখছিলেন মুকুল। মুকুলকে কেউ চিনত না। তিনি চলে যাওয়ায় বেঁচে গিয়েছে তৃণমূল, বেঁচে গিয়েছে বাংলা। মুকুলের ‘বাচ্চা ছেলে’ বলে কটাক্ষ করার জবাবে পার্থ বললেন, ‘আমি বাচ্চা ছেলে, আর উনি বড়দা। ‘

পার্থর কথায়, ‘মুকুলকে কোনোদিন নির্দেশ দেওয়া হয়নি আরএসএসের সঙ্গে যোগাযোগ করতে। সর্বৈব মিথ্যা কথা। কোথাও হালে পানি পাচ্ছে না বলেই এখন বলছে ছুটিতে যাব। ‘ তাঁর অভিযোগ, দল মুকুল রায়কে কাজ করার সুযোগ দিলেও তিনি তা করেননি।

----
--