সলমনের সঙ্গে কাজ করার জন্য ১০০০ বার ফোন করেছেন প্রিয়াঙ্কা

মুম্বই: সলমনের সঙ্গে নতুন প্রজেক্ট আসছে প্রিয়াঙ্কার। কিছুদিন আগেই এমন খবর হইচই ফেলে দিয়েছিল সিনেমাপ্রেমীদের মধ্যে। প্রায় এক দশক হয়ে গেল সলমন-প্রিয়াঙ্কা জুটিকে একসঙ্গে দেখে নি ফ্যানেরা।

সলমনের সঙ্গে আলি আব্বাস জাফরের ‘ভারত’ ছবিতে কাজ করার কথা ছিল প্রিয়াঙ্কার। সব ঠিকও হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে প্রজেক্ট ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন ‘কোয়ান্টিকো’ অ্যাকট্রেস। নিক জোনাসের সঙ্গে বিয়ের জন্যই নাকি লোভনীয় প্রজেক্ট ছেড়ে দেন তিনি। এসব নিয়ে যখন বলিপাড়ায় গুঞ্জ চলছে, তার মধ্যেই বোমা ফাটালেন সলমন। জানালেন, দিনের পর দিন সলমনের সঙ্গে কাজ করার জন্য নাকি ফোন করতেন প্রিয়াঙ্কা। সলমনের বোন অর্পিতাকে নাকি অন্তত ১০০০ বার ফোন করে ওই প্রজেক্টে কাজ করার কথা জানিয়েছিলেন অভিনেত্রী।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সলমন জানিয়েছেন, প্রিয়াঙ্কা যদি আগে বলতেন যে তিনি কাজ করতে চান না, তাহলে সব ব্যবস্থা অন্যভাবে করা যেত। বিয়ের অজুহাত দিয়েই নাকি কাজ ছেড়েছেন প্রিয়াঙ্কা।

- Advertisement -

সলমন জানান, ওই ছবিতে ৭৫-৮০ দিনের কাজ ছিল প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার। কিন্তু প্রিয়াঙ্কা জানান, বিয়ে করছেন তিনি। সলমন তাতেও রাজি ছিলেন। দিন চারেকের প্রস্তুতি, চারদিন অনুষ্ঠান, মোট আটদিন আর তারপর হানিমুন। সবটাই ম্যানেজ করে নেবেন বলে জানিয়েছিলেন, দাবাং আ্যাক্টর। কিন্তু তা সত্বেও বেঁকে বসেন প্রিয়াঙ্কা।

সলমন খান এই প্রসঙ্গেই বলেন, ”এই প্রজেক্টে কাজ করার জন্য বিশেষ আগ্রহী ছিলেন প্রিয়াঙ্কা। অর্পিতে অন্তত ১০০০ বার ফোন করে প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘আমি সলমনের সঙ্গে কাজ করতে চাই।’ এমনকী আলি (পরিচালক আলি আব্বাস জাফর)-কেও ফোন করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা।”

সলমন জানান, প্রিয়াঙ্কার এই সিদ্ধান্তের আসল কারণ তাঁর কাছে স্পষ্ট নয়। সলমন বলেন, ”বিয়ের জন্য কাজ করতে চাইলেন না, নাকি আর আমার সঙ্গে কাজ করতে চান না প্রিয়াঙ্কা। হতে পারে, বলিউডে আর কাজই করতে চাইছেন না তিনি।” সব শেষে প্রিয়াঙ্কার উদ্দেশে সলমন বলেন, ”কারণ যাই হোক, প্রিয়াঙ্কার জন্য আমার শুভ কামনা রইল। ওর এনগেজমেন্টের খবরে আমি খুশি।”

২০১৯-এই মুক্তি পাওয়ার কথা ‘ভারত’ ছবির। ছবিতে সলমন ছাড়াই রয়েছেন টাবু ও দিশা পাটানি।

Advertisement
---