মালদহ: রাতের অন্ধকারে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের আলমারি থেকে ফাইল লোপাটের চেষ্টা। হাতে নাতে ধরা পড়ল রসায়ন বিভাগের ছাত্র। ঘটনার তদন্তে নেমেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। উপাচার্য সাগর সেনের অভিযোগ এর পিছনে বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপকের মদত রয়েছে।

যদিও সংবাদ মাধ্যমের সামনে সেই নাম তিনি বলতে চাননি। এই ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে আবারও প্রশ্ন চিহ্ন দেখা গিয়েছে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রসায়ন বিভাগের ছাত্র ফাইল নিয়ে বের হচ্ছিল। সেই সময় নিরাপত্তারক্ষীরা তাকে দাঁড় করিয়ে তল্লাশি শুরু করে। সেই সময় বলা হয় রেজিস্টার নির্দেশ রয়েছে রাত্রিবেলা কোন কিছু বের হলে তা তল্লাশি করে দেখার।

ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে আসে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য স্বাগত সেন। এরপরই খবর দেওয়া হয় ইংরেজবাজার থানার পুলিশকে। ইতিমধ্যেই আলমারি ও ফাইলটিকে সিল করে দেওয়া হয়। অধ্যাপকের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘আমাকে সম্মানহানি করার জন্য এইগুলি করা হচ্ছে। আর যে ফাইলগুলো নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেগুলি সব সিলেবাস সংক্রান্ত ফাইল। অন্য কোন ফাইল ওখানে ছিল না।’