অনেকদিন ধরে ম্যাট্রিমনি সাইটে প্রোফাইল খুলেছেন? অথচ মনের মতো মানুষের চোখ পড়ছে না আপনার প্রোফাইলে? জেনে রাখবেন, ম্যাট্রিমনি সাইটের প্রোফাইলগুলি খুললেই সবার আগে চোখ পড়ে সুন্দর প্রোফাইল ফটোর দিকে৷ সেই প্রোফাইল ফটো পছন্দ হলে তারপরেই সেই মানুষটির প্রোফাইল দেখা হয়৷ এবার আপনি সেই প্রোফাইল ফটো দেখেই আন্দাজ করে নিতে পারবেন মানুষটিকে৷ আপনিও বুঝবেন কি প্রোফাইল পিকচার দিলে তা পছন্দ হবে বিপরীত প্রান্তের৷ জেনে নিন বিশেষজ্ঞদের মতে কি বলছে কি ধরণের প্রোফাইল পিকচার৷ তার কিছু নমুনা রইল আপনার জন্য৷ মনের মানুষ চিনতে এবার আরও সুবিধা হবে আপনার৷

১. বন্ধুদের সঙ্গে ছবি
বন্ধুদের মাঝে মধ্যমণি হয়ে অনেকেই ছবি দেন৷ তাতে তাঁর বহির্মুখী মনোভআব প্রকাশ পায়৷ মিশুকে ও হাসিখুশি স্বভআব্র হন তাঁরা৷ তার পাশাপাশি মনে রাখবেন ম্যাট্রিমনি সাইটে এই ছবি প্রোফাইল পিকচার করার আও একটি গভীর তথ্য হল সে কখনওই বিয়ের পরে তার বন্ধুবান্ধবদের জলাঞ্জলি দেবেন না৷

২. চোখ বড়ো
চোখ বড়ো যে সব মহিলাদের তারা সধারণত আকর্ষণীয় হন৷ বীপরিত দিককে আকর্ষিত করতে তাদের জুড়ি মেলী ভার৷

৩. অস্পষ্ট ছবি
অনেকে একটু অন্যরকম ছবি দিতে গিয়ে নিজের ছবিতে এতরকম কারুকর্য করে ফেলেন যে সমস্যা বাঁধে তাতেই৷ অস্পষ্ট প্োফাইল পিকচার দেখে আপনাকে অনেকেই ভাবতে পারে আনসোশ্যাল, ঘরকুনো৷ তাতে খারাপ প্রভাব পরতে পারে আপনার উপরে৷ তাই অবশ্যই নিজের স্পষ্ট ছবি দিন৷

৪. অহংকারী
আপনার প্রোফাইলে যদি আপনি এমন ছবি দিয়ে রাখেন যেখানে মনে হয় আপনি নিজেকে প্রকাশ করতে চাইছেন সেই ছবি খারাপ প্রভআব ফেলে দর্শকের মনে৷ অর্থাৎ এমন ছবি দেওয়া উচিৎ নয় যেখানে আপনাকে ঘিরে রয়েছে সবাই৷ বা আপনি এমন কিছু করছেন যার পরিবর্তে আপনার প্রশংসা প্রাপ্য৷ তাতে প্রশংসা নয়৷ বরং আপনাকে আত্ম অহংকারীই ভাবেন উল্টো প্রান্ত৷

৫. সুন্দর ও স্টাইলিস
প্রোফাইল পিকচার স্টাইলিস এবং সুন্দর ও স্পষ্ট হলে বুঝতে হবে সেই মানুষটি মিশুকে ও হাসিখুশি৷ এনার্জিটিক আর সতেজ মানষিকতার পরিচয়বাহক এই প্রোফআইল পিকচার৷

৬. অতিরিক্ত হাসিমুখ
ম্যাট্রিমনি সাইটে অতিরিক্ত হাসিমুখের ছবি না দেওয়াই ভআলো৷ তাতে আপনাকে হাল্কা মনের মানুষ ভআবতে পারেন অনেকে৷ মনে রাখবেন জীবনসঙ্গী হিসেবে সাধারণত সবাই একটু বুদ্ধিদীপ্ত মানুষ পছন্দ করে৷

----
--