ভিন রাজ্য থেকে এসে বিপাকে কুড়ি চাকার লরি চালকরা

স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: সম্প্রতি কলকাতার মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার পর রাজ্য সরকারের তরফে পণ্য পরিবহনকারী কুড়ি চাকা লরিগুলির যাতায়াত নিয়ে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। আর এই নির্দেশিকার জেরেই বাঁকুড়ায় পৌঁছে বিপাকে পড়েছেন ভিন রাজ্য থেকে আসা বেশ কয়েকজন লরি চালক৷

আরও পড়ুন: মরা তোর্সার উপর এই সেতুর হাল দেখুন

বিষ্ণুপুর শহরে ঢোকার মুখে বিষ্ণুপুর-মেদিনীপুর জাতীয় সড়কের উপর উজালা ফ্যাক্টরি মোড়ে একের পর এক দাঁড়িয়ে পড়েছে পণ্য পরিবহনকারী লরিগুলি। এই রাস্তার উপর বেশ কয়েকটি সেতু থাকায় পুলিশের পক্ষ থেকে আপাতত ‘নো এন্ট্রি’ এলাকা হিসেবে ঘোষণা করার ফলেই এই ঘটনা বলে জানা গিয়েছে। দিনের ব্যস্ত সময়ে এভাবে একের পর এক লরি দাঁড়িয়ে পড়ায় গুরুত্বপূর্ণ ওই জাতীয় সড়কে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে বলে অভিযোগ।

- Advertisement -

শনিবার বিষ্ণুপুর উজালা মোড়ে পেঁয়াজের লরি নিয়ে নিয়ে আসা অমিয় রঞ্জন বলেন, ‘‘অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে পেঁয়াজ নিয়ে আসছি। শুক্রবার রাত থেকে এখানে দাঁড় করিয়ে রেখেছে। পুলিশকে কিছু জিজ্ঞাসা করলেও বলতে চাইছে না। এই জায়গায় কোনও দোকান পাট না থাকায় রাত থেকে না খেয়ে আছি৷ এদিকে সঠিক সময়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে না পারলে পেঁয়াজ পচে যাবে।’’ আর পেঁয়াজ পচে গেলে তাঁদের বেতন থেকে টাকা কেটে নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান৷

আরও পড়ুন: ‘শুভেন্দুবাবু আমাকে চেনেন, directly নয় indirectly’

একই অভিজ্ঞতার কথা শোনালেন জাহের খান ও জহিরুল ইসলামও। তাঁরা বলেন, ‘‘আমাদের লরিতে ডিম, পেঁয়াজ আছে। সঠিক সময়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে না পারলে সব সামগ্রী পচে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’’ এই অবস্থায় এই জায়গায় দিনের পর দিন দাঁড়িয়ে থাকতে হলে তাঁরা সমস্যায় পড়বেন বলেও জানান।

Advertisement ---
---
-----