শ্রীনগর: ইদের সকালেই উত্তপ্ত জম্মু কাশ্মীর৷ একদিকে দুই পুলিশ কর্মীর মৃত্যু, অন্যদিকে সেনার গাড়ি লক্ষ্য করে উত্তেজিত মারমুখী জনতার পাথর ছোঁড়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে৷ এদিন ইদের নমাজ শেষ হওয়ার পরেই শ্রীনগরের রাস্তার দখল নেয় বিক্ষুব্ধ জনতা৷ অভিযোগ পাকিস্তানের পতাকা ও আইসিসের পতাকা প্রদর্শন করে তারা৷

শুধু তাই নয়, চলে সেনার গাড়ি লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া৷ এছাড়াও বড় বড় লাঠি নিয়ে হামলা চালানো হয় নিরাপত্তারক্ষীদের গাড়ি লক্ষ্য করে৷

সংবাদসংস্থা এএনআইয়ের প্রকাশ করা একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে সেনার গাড়ি এলেও, গাড়ি লক্ষ্য করে হামলা চলছে৷ চলছে লাঠি দিয়ে হামলা, পাথর ছোঁড়া৷ বুধবার সকালে ইদের নমাজ পড়ার জন্য স্থানীয় মসজিদে জড়ো হন অনেকেই৷ নমাজের পরেই নিরাপত্তারক্ষী ও নমাজে উপস্থিত মানুষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়৷

ফুটেজে দেখা যায় বিক্ষোভকারীদের কাছে আইসিস ও পাকিস্তানের পতাকা ছাড়াও একটি কালো রংয়ের ব্যানার ছিল৷ তাতে লেখা মুসা আর্মি৷ মনে করা হচ্ছে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জাকির মুসা প্রভাবিত কোনও গোষ্ঠী এই বিক্ষোভ ও হামলার পিছনে রয়েছে৷

এদিকে, বুধবার সকালে জঙ্গিদের হাতে মৃত্যু হয় স্পেশাল পুলিশ অফিসার ফাওয়াজ আহমেদ শাহের৷ জম্মু কাশ্মীরের শোপিয়ান জেলায় জাজরিপোরা এলাকায় এই ঘটনা ঘটনা ঘটে৷ তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে৷ একটি ইদগাহের বাইরে তাঁকে হত্যা করা হয় বলে জানা গিয়েছে৷ ইদের নমাজ শেষ করে বেরিয়ে আসার পরেই ৩২ বছরের এই পুলিশকর্মীর ওপর গুলি চালানো হয় বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে৷

----
--