আইএসআই-য়ের পরিকল্পনাতেই হয়েছে পুলওয়ামা হামলা: লেঃ জেনারেল কে সিং

নয়াদিল্লি: স্পষ্ট হয়েছিল আগেই৷ এবার ভারতীয় সেনাবাহিনীর মুখেও সেই দাবি৷ পুলওয়ামা জঙ্গি হামলার পেছনে রয়েছে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই এর মদত৷ মঙ্গলবার ভারতীয় সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল কনওয়ালজিত সিং ধিলোন এই দাবি করেন৷

আরও পড়ুন: BREAKING NEWS: মুখোমুখি সংঘর্ষে ভেঙে পড়ল এয়ার ফোর্সের দুই বিমান

লেফটেন্যান্ট জেনারেল কনওয়ালজিত সিং বলেন, ‘‘কার নির্দেশ এই হামলা করা হয় তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ তবে ক্রমশ নিশ্চিত হচ্ছে যে হামলার পরিকল্পনার পেছনে রয়েছে পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা ইন্টার সার্ভিস ইন্টালিজেন্স৷ এবং পাক সেনার নির্দেশেই এই হামলা করেছে সেদেশের জঙ্গি সংগঠন জইশ-এ-মহম্মদ৷’’ নির্দিষ্ট প্রমাণের ভিত্তিতে ভারতীয় সেনা এই কতা বলছে বলে দাবি লেফটেন্যান্ট জেনারেল কনওয়ালজিত সিং-য়ের৷

- Advertisement -

গত বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কাশ্মীরের সেনা কনভয়ে আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটে৷ শহিদ হন ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ান৷ আর্ত্মঘাতী জঙ্গি আদিল মহম্মদ দার এই হামলার আগে এক ভিডিও রেকর্ড করেন৷ যা হামলার পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করা হয়৷ সেকানেই ওই জঙ্গি যুবক সাফ জানায়, সে পাক জঙ্গি সংগঠন জইশ-এ-মহম্মদের সদস্য৷ তারপর থেকেই স্পষ্ট হয় এই হামলার পিছনে রয়েছে জইশ-এর হাত৷ যদিও পাক বিদেশ মন্ত্রকের তরফে নয়াদিল্লির এই দাবি নস্যাৎ করা হয়৷

হামলার পর থেকেই দেশ জুড়ে প্রবল আলোড়ন শুরু হয়৷ গোটা দেশ গর্জে ওঠে৷ নয়াদিল্লিও কড়া পতিক্রিয়া দেয়৷ ভারতীয় সেনাবাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয় কড়া পদক্ষেপের৷ সোমবার উপত্যাকায় সেনাবাহিনীর অভিযানে নিহত হন পুলওয়ামা হামলার মাস্টার মাইন্ড সহ তিন জঙ্গি৷ এদের মধ্যে জইশ জঙ্গি কামরানের সংগঠনের নির্দেশেই ভারতে অনুপ্রবেশ করে৷

হামলার মাস্টাইমাইন্ডের মৃত্যু ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাফল্য বলে মনে করা হচ্ছে৷ মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠক করেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল কনওয়ালজিত সিং৷ হামলার পেছনে ১০০ শতাংশ পাক যোগ রয়েছে বলে দাবি তাঁর৷ এছাড়া তিনি বলেন, কাশ্মীর উপত্যকায় কোনও অশান্তি বরদাস্ত করা হবে না, নাশকতায় যুক্তরা আত্মসমর্পণ করতেও বলেন তিনি৷

আরও পড়ুন: ‘অস্ত্র হাতে দেখলেই গুলি’, পুলওয়ামাকাণ্ডে কড়া বার্তা সেনার

এর পাশাপাশি কাশ্মীরি মা-দের কাছে অনুরোধ করেন যাতে তাঁরা সন্তানদের বোঝান সঠিকপথে চলার জন্য৷ সেই সঙ্গে তিনি এও জানান জঙ্গিনিধনে চলছে এনকাউন্টার পর্ব৷ আর নিজেদের নিরাপত্তার জন্যই যেন সকলে এই এনকাউন্টার সাইট থেকে দূরে থাকেন৷