জমানো গয়না বিক্রি করে সেনাকে দিলেন এই দম্পতি

পুণা: নিজেদের সঞ্চয়ের বেশ কিছু গয়না বিক্রি করে সেই অর্থ সেনাদের হাতে তুলে দিলেন পুণের বাসিন্দা যোগেশ চিথাদে ও তাঁর স্ত্রী সুমিধা৷ তাদের উদ্দেশ্য, সিয়াচেনে ভারতীয় জওয়ানদের জন্য একটি অক্সিজেন উৎপাদনের প্ল্যান্ট গড়ে তোলা।

সিয়াচেনে তাপমাত্রা সবসময় মাইনাস ৪০-৫০ ডিগ্রি। সেখানে ঠান্ডার সঙ্গে লড়াই করেই দেশকে সুরক্ষা দেন ভারতীয় জওয়ানরা৷ কিন্তু শুধু ঠান্ডা নয়, আছে আরও প্রতিকূলতা৷ বর্তমানে চণ্ডীগড় থেকে অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে যাওয়া হয় সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৩০ হাজার ফুট উচ্চতায় অবস্থিত সিয়াচেনের বেস ক্যাম্পে। তারপর ২০০ লিটারের এক একটি ভারী সিলিন্ডার পিঠে তুলে সেখান থেকে ২২ হাজার ফুট উচ্চতায় মূল ক্যাম্পে নিয়ে আসেন সেনারাই।

এই ছবি ধাক্কা দিয়েছিল পুনের ওই দম্পতিকে৷ ভারতীয় সেনাকে সাহায্য করতে তাই এগিয়ে এলেন তাঁরা৷ নিলেন এক মহৎ পদক্ষেপ৷ তাঁরা ইতিমধ্যেই সিদ্ধান্ত নেন, নিজেদের গয়না বিক্রি করবেন। সেই অর্থ তুলে দিয়েছেন সেনাদের হাতে।

- Advertisement -

এই অর্থ দিয়ে বরফে ঢাকা সিয়াচেনেই গড়ে তোলা যায় অক্সিজেন উৎপাদনের কারখানা৷ অর্থাৎ বাইরে থেকে ভরতি সিলিন্ডার আনার প্রয়োজন হবে না। এখানেই সিলিন্ডার ভরতি করা যাবে। ফলে সময় এবং খরচ দুই বাঁচবে সেনাদের। তবে এই প্রথমবার নয়। ১৯৯৯ সাল থেকেই সেনাদের কাজে নানাভাবে সাহায্য করে আসছেন এই দম্পতি। তার জন্য একটি চ্যারিটেবল ট্রাস্টও তৈরি করেছেন তাঁরা। ভারতীয় বায়ুসেনা থেকে অবসরপ্রাপ্ত যোগেশ জানাচ্ছেন, এমন কারখানা বাস্তবায়িত হলে সিয়াচেনে কর্তব্যরত ৯ হাজার সেনা উপকৃত হবেন।

গয়না বিক্রি করে এই কাজের জন্য তাঁরা ১ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা দিয়েছেন সেনাখাতে। তবে এমন প্ল্যান্ট গড়তে খরচ কমপক্ষে ১ কোটি ১০ লক্ষ টাকা। তাঁরা জানিয়েছেন, এখনও কিছু গয়না আছে। প্রয়োজনে সব বিক্রি করে দেবেন।

Advertisement ---
---
-----