ভারতীয় পিতামহের সমাধিতে আসবেন হবু পাক প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ ?

জাটি উমরা (পাঞ্জাব): আরও একবার ইতিহাসের মুখোমুখি পাঞ্জাবের জাটি উমরা গ্রাম৷ এই গ্রামেরই ছেলে শাহবাজ শরিফ পাকিস্তানের ২৮ তম (কেয়ারটেকার প্রধানমন্ত্রীদের তালিকা ধরে) প্রধানমন্ত্রী হতে চলেছেন৷

স্বাভাবিকভাবে জাটি উমরা গ্রামে উত্তেজনা৷ পানামা পেপারসের ফাঁস হওয়া বিপুল পরিমাণ আর্থিক দুর্নীতির বোঝা মাথায় নিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রীর কুর্সি ছেড়েছেন নওয়াজ শরিফ৷ জাটি উমরা গ্রামেই তাঁর পৈত্রিক ভিটে৷ এই গ্রামে এখনো রয়েছে নওয়াজ ও শাহবাজ শরিফের পিতামহ মিঞা মহম্মদ বক্সের সমাধি৷ গ্রামবাসীদের মনে প্রশ্ন, প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর তিনি কি আসবেন পিতামহের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে৷

আরও পড়ুন: কলকাতা সফরের মাঝেই কুর্সি গিয়েছিল পূর্ব পাকিস্তানের এই বাঙালি প্রধানমন্ত্রীর

অমৃতসর থেকে কম-বেশি ৪০ কিলোমিটার দূরে জেলা তরন তারনের গ্রাম জাটি উমরা৷ গত ৪৮ ঘণ্টা ধরে এই গ্রামের বাসিন্দারা চোখে রেখেছিলেন টিভির পর্দায়৷ সীমান্তের ওপারে পাকিস্তানের খবরে৷ প্রতি মুহূর্তে বাড়ছিল উত্তেজনা৷ মিঞা নওয়াজ শরিফ কি এবার টিকতে পারবেন কুর্সিতে? প্রশ্নটা ঘুরছিল গ্রামের চারপাশে৷ একই প্রশ্ন ঘুরেছে আন্তর্জাতিক মহলে৷ শুক্রবার মিলেছে উত্তর৷ পাক সুপ্রিম কোর্টের রায়ে ক্ষমতাচ্যুত হয়েছেন নওয়াজ শরিফ৷ তিনি আবারও প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী৷ এবার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পালা তাঁর ভাই শাহবাজ শরিফের৷ তাঁর নামে চূড়ান্ত শিলমোহর দিয়েছে পাকিস্তান মুসলিম লিগ(নওয়াজ)৷

- Advertisement -

শাহবাজ শরিফ পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমনন্ত্রী৷ গভর্নমেন্ট কলেজ লাহোর থেকে স্নাতক হওয়ার পর কোটি কোটি টাকার বিশাল পারিবারিক ব্যবসায়ী ইত্তেফাক গ্রুপে যোগ দেন৷ সেই সঙ্গে শুরু হয় রাজনীতি৷ দ্রুত পাকিস্তানের প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব হয়ে ওঠেন শাহবাজ শরিফ৷ ক্রিকেট প্রেমী শাহবাজ তাঁর বড়দা নওয়াজ শরিফের বিশেষ ঘনিষ্ঠ৷

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের রাজনীতিতে শুরু থেকেই প্রভাব বিস্তার করে রেখেছেন শাহবাজ শরিফ৷ দু বার মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন৷ প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মুশারফের আমলে নওয়াজ ও শাহবাজ শরিফকে দেশছাড়া হতে হয়েছিল৷ তাঁরা সৌদি আরবে রাজনৈতিক আশ্রয় নেন৷ পরে শাহবাজ শরিফ রিয়াধ থেকে লাহোর ফিরে এলেও তাঁকে এয়ারপোর্ট থেকে ফেরত পাঠানো হয়৷

দলীয় ও জাতীয় স্তরে ক্ষমতার অলিন্দে থাকা শাহবাজ শরিফের হাতেই যাচ্ছে পাকিস্তানের কুর্সি৷ সময়ের অপেক্ষা৷ সেই অপেক্ষার প্রহর কাটাচ্ছেন প্রতিবেশী ভারতের জাটি উমরার বাসিন্দারা৷

আরও পড়ুন: অল ক্রেডিট গোজ টু…

Advertisement ---
-----