স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: মাঝেরহাট কান্ডের পর নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। বেশ কয়েকটি উড়ালপুলকে বিপজ্জনক বলে ঘোষণা করেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

তারই জেরে আজ উত্তর ২৪ পরগনার গুরুত্বপূর্ণ সোদপুর উড়ালপুল পরিদর্শন করলেন রাজ্য পূর্ত দফতরের ইঞ্জিনিয়াররা। এদিন বিকেলে পূর্ত দফতরের ইঞ্জিনিয়াররা সোদপুরে আসেন সঙ্গে ছিলেন খড়দা থানার পুলিশ আধিকারিকরা এবং ট্রাফিক বিভাগের কর্মীরা। তারা সেতুর উপর এবং নিচের বিভিন্ন অংশ খতিয়ে দেখেন।

উড়ালপুলটি সোদপুর রেল স্টেশনের উপর দিয়ে গেছে। স্টেশন চত্বরের মধ্যভাগের অংশের রক্ষনাবেক্ষনের দ্বায়িত্বে রয়েছে রেলমন্ত্রক। বর্তমানে সেতুটির প্রায় ভগ্নপ্রায় অবস্থা। তাই পোস্তা,মাঝেরহাট শহরে পর পর সেতু বিপর্যয়ে আতঙ্ক দানা বেঁধেছে সেখানকার বাসিন্দাদের মধ্যে। সকলেই চাইছেন দ্রুত সেতুর সংষ্কারের কাজ শুরু করুক রেল ও রাজ্য পূর্ত দফতর। তবে এখনও পর্যন্ত রেলমন্ত্রক এই সেতু সংস্কার প্রসঙ্গে কোন মন্তব্য করেনি।বিধানসভার মুখ্যসচেতক তথা পানিহাটির বিধায়ক নির্মল ঘোষ কয়েকদিন আগে নিজেই এই ব্রীজ পরিদর্শন করে পূর্ত দফতরের সঙ্গে কথা বলেছিলেন। এরপরই ব্রীজটি পরিদর্শনে প্রতিনিধিদল পাঠায় পূর্ত দফতর।

এই সেতুটি পানিহাটি এবং মধ্যমগ্রামের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করেছে। প্রতিদিন এই সেতুর উপর দিয়ে প্রায় কয়েক হাজার পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল করে। বর্তমানে এই সেতুর উপর গাড়ির চাপ আরও বেড়েছে। তাই দ্রুত পরিদর্শনে নামলেন পূর্তদফতরের ইঞ্জিনিয়াররা। তারা জানিয়েছেন, সেতুর বর্তমান অবস্থা নিয়ে পূর্ত বিভাগকে এবং রেল দপ্তরকে রিপোর্ট জমা দেওয়া হবে। পূর্ত বিভাগ এবং রেল দফতর আগামীদিনে সেতুর রক্ষনাবেক্ষন সম্পর্কে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।

--
----
--