লক্ষ্মীর ভোগের থালা ভরুক সবজি ভুনা খিচুড়িতে

আজ লক্ষ্মী পুজো অনেকেই ভোগ রান্না করবেন কোজাগরীর জন্য৷ তাই আপনার জন্য রইল সবজি ভূনা খিচুড়ির রেসিপি৷ বানায়ে দেখুন. মা লক্ষ্মীর তো সন্তুষ্ট হবেনই৷ সঙ্গে নিমন্ত্রিত আত্মীয়রাও আবার গুনগান করতে বাধ্য৷এই খিচুড়ির সঙ্গে বানিয়ে নিন লাবরা করকারি আর ব্গেুনি৷ব্যাস একেবারে জমে উঠবে আপনার পুজোর ঘরের ভোগের থালা৷

উপকরণ:
গোবিন্দভোগ চাল— ২০০ গ্রাম, ভাজা মুগের ডাল— ২৫০ গ্রাম, টম্যোটো কুচি— ১/২ কাপ, আদাবাটা— ২ টেবিলচামচ, ঘি— ৫০ গ্রাম, সাদা তেল— ৬ টেবিলচামচ, চেরা কাঁচালঙ্কা— ৬-৭টি, সাদা জিরে— ১ চা-চামচ, তেজপাতা— ২টি, শুকনো লঙ্কা— ২টি, হলুদগুঁড়ো— ১ চা-চামচ, লঙ্কাগুঁড়ো— ১/২ চা-চামচ, জল— ৭০০ মিলিলিটার, বড় টুকরো করা আলু— ৪টি, ফুলকপি বড় করে কাটা— ৮ টুকরো, মটরশুটি— ১ কাপ, নুন— স্বাদমতো, চিনি— ৩ চা-চামচ, নারকেল কুচি— ১/২ কাপ

প্রণালী: আলু ও কপি নুন মাখিয়ে সোনালি করে ভেজে তুলুন। একটা কড়াইতে তেল ও ঘি মিশিয়ে গরম করুন। চাল ও ভাজা মুগ ডাল ধুয়ে জল ঝরিয়ে রাখুন। এইবার তেল গরম হলে তাতে জিরে, তেজপাতা ও শুকনো লঙ্কা ফোড়ন দিন। ফোড়ন হলে তাতে ভিজিয়ে রাখা চাল ও নারকেল কুচি দিয়ে ভাল করে ভাজুন। চাল-ডাল ভাজতে ভাজতেই তার সঙ্গে মেশাতে থাকুন আদাবাটা, হলুদগুঁড়ো, লঙ্কাগুঁড়ো ও টম্যাটো কুচি। নুন ও চিনিও দিয়ে দিন। চাল-ডাল-মশলা যখন বেশ কষানো হয়ে যাবে তখন জল দিয়ে ঢাকা দিয়ে মাঝারি আঁচে রান্না করুন।

- Advertisement -

জল ফুটে উঠলে তাতে আলু, ফুলকপি, মটরশুটি ও কাঁচালঙ্কা দিয়ে আবার ঢাকা দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করুন। মাঝেমধ্যে নেড়ে দেবেন যেন তলায় না লেগে যায়। জল শুকিয়ে এলে গ্যাস বন্ধ করে দিন ও কড়াইতে ঢাকা দিয়ে একটা ভারী কিছু চাপা দিয়ে ২০ মিনিট ভাপে রাখুন। কুড়ি মিনিট পর ঢাকা খুলে পুরো জিনিসটা নাড়াচাড়া করে নিন। ব্যস্, তৈরি হয়ে গেল সবজি ভুনা খিচুড়ি।

Advertisement ---
-----