ইংল্যান্ডে বিরাটদের ভবিষ্যদ্বাণী করলেন দ্রাবিড়

লন্ডন: এক দশক আগে ইংল্যান্ডের মাটিতে ভারতকে শেষবার টেস্ট সিরিজ জিতেছিল রাহুল দ্রাবিড়ের ভারত৷ ২০০৭ ইংল্যান্ডের মাটিতে ১-০ টেস্ট সিরিজ জেতে টিম ইন্ডিয়া৷ এবার বিরাটের নেতৃত্বে ভারত ইংল্যান্ডের মাটিতে ২-১ সিরিজ জিতবে, এমনটাই ভবিষ্যদ্বাণী করলেন ‘দ্য ওয়াল’৷

৩৫ বছর পর রাহুল দ্রাবিড়ের হাত ধরে ফের ইংল্যান্ডের মাটিতে টেস্টের সিরিজ জেতে ভারত৷ তিন টেস্টের সিরিজে লর্ডসে প্রথম টেস্ট ড্র হলেও নটিংহ্যামে দ্বিতীয় টেস্টে ইংল্যান্ডকে সাত উইকেটে হারিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ এগিয়ে যায় দ্রাবিড় অ্যান্ড কোং৷ দ্য ওভালে সিরিজের তৃতীয় তথা শেষ টেস্ট ড্র হলেও ১-০ সিরিজ পকেটে পুরে নেয় ভারত৷ এর আগে অর্থাৎ প্রথমবার ইংল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট সিরিজ জিতেছিল ১৯৭১ সালে৷ সেবারও তিন ম্যাচের সিরিজ ১-০ জেতে অজিত ওয়াদেকরের ভারত৷ লর্ডস ও ম্যাঞ্চেস্টারে প্রথম দু’টি টেস্ট ড্র হলেও দ্য ওভালে সিরিজে শেষ টেস্ট জিতে প্রথমবার ভারতকে ব্রিটিশভূমে টেস্ট জেতায় ওয়াদেকর অ্যান্ড কোং৷ এবার ইংল্যান্ডের মাটিতে পাঁচ টেস্টের সিরিজ খেলতে নামছে বিরাটবাহিনী৷

বিবিসি ৫ লাইভ স্পোর্টস-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে দ্রাবিড় বলেন, ‘বিরাটদের সফল হতে হলে দ্রুত পরিবেশ ও পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে৷ ২০০৭ আমরা এখানে জিতেছিলাম৷ তিন ম্যাচর সিরিজ ছিল৷ শুরুটা মন্দ হয়নি৷ তবে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ হলে আরও একটু বেশি সময় পাওয়া যায়৷’ তবে বিরাটদের সিরিজ জিততে হলে ২০ উইকেট তুলতে হবে বলে মনে করেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক৷ একই সঙ্গে অন্তত চারটি টেস্টে বোলারদের ফিট থাকতে হবে বলেও জানান কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান৷

- Advertisement -

দ্রাবিড় বলেন, ‘আমার মনে হয় ভারতের এই দলে ২০টি উইকেট নেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে৷ আমাদের রান তুলতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়৷ কিন্তু আমাদের ফাস্ট বোলারদের ফিট রাখতে হবে৷ দলে তরুণ পেসার রয়েছে৷ পাঁচ টেস্টে অর্থাৎ ছ’ সপ্তাহ ধরে তাদের ফিট থাকতে হবে৷ ২০০৭ আমরা সিরিজ জিতেছিলাম৷ প্রথম তিনটি ম্যাচে আমাদের একই বোলার নিয়েছে খেলেছি৷ আমরা ভাগ্যবান ছিলাম যে, কেউ চোট পায়নি৷ সুতরাং এবারও আমরা সেরা বোলারদের চার থেকে পাঁচটি টেস্ট ফিট পেলে সিরিজে জয়ের দারুণ সুযোগ থাকবে৷’

বিরাটদের পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ শুরু হচ্ছে বুধবার এজবাস্টনে৷ এই টেস্টটি আবার ইংল্যান্ডের ১০০০ তম টেস্ট৷ ঐতিহাসিক টেস্টে রুটবাহিনীর বিরুদ্ধে বার্মিংহ্যামে নামবে কোহলি অ্যান্ড কোং৷ এই টেস্ট জিতলেই অধিনায়ক হিসেবে টেস্ট জয়ে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে ছাপিয়ে যাবেন বিরাট৷

দু’জনে নেতৃত্ব দিয়ে দেশকে ২১টি টেস্টে জয় এনে দিয়েছেন৷ এজবাস্টনে রুটবাহিনীকে পরাজিত করতে পারলেই সৌরভকে পিছনে ফেলে ধোনিকে অনুসরণ করবেন কোহলি৷ ভারতীয় অধিনায়ক সর্বাধিক ২৭টি টেস্ট জয়ের রেকর্ড রয়েছে বিরাটের উত্তরসূরি মহেন্দ্র সিং ধোনির দখলে৷ ৬০টি টেস্টে দেশকে নেতৃত্ব দিয়ে ২৭টিতে জয় এনে দিয়েছে৷ চলতি ইংল্যান্ড সফলে সৌরভকে টপকে ধোনির ধরার দিকে এগনোর হাতছানি বিরাটের সামনে৷ টেস্ট ক্রিকেটে সাফল্যের নিরিখে অবশ্য অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন কোহলি৷ টেস্টে বিরাটের সাফল্যের রেকর্ড ৬০ শতাংশ৷

তবে চলতি ইংল্যান্ড সফরই ক্যাপ্টেন কোহলির আসল পরীক্ষা৷ এই সিরিজ জিতলে ক্যাপ্টেন বিরাটের মুকুটে যোগ হবে আরও একটি পালক৷ এখনও পর্যন্ত ৩৬টি টেস্টে দেশকে নেতৃত্ব দিয়েছেন বিরাট৷ ২০১৪ অস্ট্রেলিয়া সফরের মাঝপথে ধোনির হঠাৎ টেস্ট অবসরে নেতৃত্বের ব্যাটন ওঠে বিরাটের হাতে৷ অভিষেক সফরেই দেশকে নেতৃত্ব দেওয়ার পাশাপাশি ব্যাট হাতেও সফল হয়েছিলেন বিরাট৷ চার টেস্টের সিরিজে ৬৯২ রান এসেছিল বিরাটের ব্যাট থেকে৷

Advertisement ---
---
-----