মহিলাদের প্রসঙ্গ টেনে মোদীকে আক্রমণ রাহুলের

ভোপাল: কড়া নাড়ছে পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন। এরপরে আবার রয়েছে সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচন। তার আগে রাজনৈতিক আক্রমণ এবং পালটা আক্রমণে উত্তপ্ত হচ্ছে পরিস্থিতি।

মহিলাদের প্রসঙ্গে টেনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। সোমবার মধ্যপ্রদেশের দাতিয়ে এলাকায় ভটের প্রচারে গিয়েছিলেন রাহুল। সেখানেই বিজেপি এবং নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে সরব হন কংগ্রেস সভাপতি।

প্রধানমন্ত্রীকে লক্ষ্য করে রাহুলের আক্রমণের বিষয় ছিল মোদীর স্লোগান ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও’। সেই স্লোগান নিয়েই মোদীকে আক্রমণ করেছেন রাহুল। তিনি বলেছেন, “মোদী জি বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও স্লোগান দিয়েছেন। যেটা শুনতে খুব ভালো লাগে।”

এরপরেই রাহুল চলে গিয়েছেন মধ্যপ্রদেশের ধর্ষণের ঘটনার প্রসঙ্গে। যে ঘটনায় অভিযোগ উঠেছিল এক বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে। রাহুল বলেছেন, “আমরা প্রথমে বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও শুনি। তারপরেই শুনি যে বিজেপি বিধায়ক একজনকে ধর্ষণ করেছে।” একই সঙ্গে তিনি আরও বলেছেন, “ওই অভিযুক্তকে বাঁচাতে আসরে নামেন মুখ্যমন্ত্রী।”

ওই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নিরব থাকার ঘটনাকেও কাঠগড়ায় তুলেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। তিনি বলেন, “ওই ধর্ষণের ঘটনা নিয়ে কোনও কথা বলেননি প্রধানমন্ত্রী। শুধু তাই নয়, অভিযুক্ত ব্যক্তিকে দল থেকেও বহিষ্কার করা হয়নি।” মোদীর স্লোগানকে কটাক্ষ করে রাহুল বলেছেন, “স্লোগানটি হওয়া উচিত ছিল বেটি পড়াও আর বেটিদের বিজেপি বিধায়কদের থেকে বাঁচাও।”

সোমবার বিধানসভা ভোটের হাওয়া বইতে থাকা মধ্যপ্রদেশে দাতিয়া এলাকার পীতমবড়া শক্তিপীঠে গিয়ে পুজো দিয়েছেন রাহুল গান্ধী। সঙ্গে ছিলেন কংগ্রেস নেতা জ্যোতিপ্রকাশ স্কিন্দিয়া এবং কমল নাথ।

----
-----