ব্রিগেড নিয়ে মমতাকে চিঠি দিলেন রাহুল

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: যে নেত্রী একসময় তাঁর বাবার আদর্শে রাজনীতি করেছেন তিনি এখন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী৷ তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকা ব্রিগেডে বিরোধী ঐক্যের সমাবেশকে সমর্থন জানিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ চিঠিতে তিনি লিখেছেন,”বিরোধীরা আজ ঐক্যবদ্ধ। আগামীকালের সভার জন্য মমতা দিদির প্রতি আমার সমর্থন রয়েছে। মমতাদির ব্রিগেডে বিরোধী ঐক্যের ছবি সংঘবদ্ধ ভারতের শক্তিশালী বার্তা দেবে৷”

একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করে রাহুল বলেছেন, গোটা ভারতে শুধু ক্রোধ-হতাশার বহিঃপ্রকাশ৷ মোদীর মিথ্যা প্রতিশ্রুতিতে ক্ষুব্ধ লাখো দেশবাসী৷ গণতন্ত্ররক্ষায় একজোট বিরোধীরা৷ গনতন্ত্র- ধর্মনিরপেক্ষতা থাকলে উন্নয়ন হবেই৷ বাংলা চিরকাল এই আদর্শ রক্ষার পক্ষে৷

আরও পড়ুন: মমতাই যোগ্য জাতীয় নেতা: শত্রুঘ্ন সিনহা

২০১৯ লোকসভা ভোটে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে উৎখাতে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি জোট গঠনের চেষ্টা চালাচ্ছে৷ সেই জোট শক্ত করতে সচেষ্ট তৃণমূল সুপ্রিমো৷ ১৯শে জানুয়ারি ব্রিগেডে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে একমঞ্চে এনে চমক দিতে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এখনও পর্যন্ত যাঁদের আসার কথা মমতা জানিয়েছেন তাতে এককথায় শনিবাসরীয় ব্রিগেডে নক্ষত্র সমাবেশ হবে৷ কংগ্রেসের প্রতিনিধি হয়ে লোকসভার বিরোধী দলনেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে আসছেন বলে তৃণমূলনেত্রী দাবি করেছেন৷

তবে মমতাকে রাহুলের এই চিঠি যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল৷ কারণ কংগ্রেস ও তৃণমূল, দুদলে সবাই জানেন, রাহুলকে কার্যত এড়িয়েই চলেন মমতা৷ সরাসরি তিনি সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গেই যোগাযোগ রাখেন৷ রাহুলকেও তেমন মমতার সঙ্গে প্রকাশ্যে সখ্যতা রাখতে দেখা যায় না৷ তাই মমতাকে রাহুলের চিঠি পাঠানোর পরই রাজ্য তো বটেই জাতীয় রাজনীতির উত্তাপ আরও বাড়ল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা৷

-------
----