মুম্বই: অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী। সোমবারি তাঁকে দেখতে গিয়েছিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। মঙ্গলবার সেই প্রসঙ্গে টেনেই বিজেপির বর্ষীয়ান নেতাদের নিয়ে মোদীকে কটাক্ষ করলেন রাহুল। টেনে আনলেন আদবানীর প্রসঙ্গও।

তিনবার পরধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন অটল বিহারী বাজপেয়ী। কংগ্রেসের বাইরে তিনিই একমাত্র যিনি, তিনবারই পাঁচ বছর অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রিত্বের মেয়াদ সম্পূর্ণ করেছেন। সম্প্রতি মূত্রনালীতে সংক্রমণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন বাজপেয়ী।

- Advertisement -

মঙ্গলবার মুম্‌বইতে এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাহুল বলেন, ”আমরা বাজপেয়ীজির বিরুদ্ধে লড়াই করেছি। কিন্তু, উনি অসুস্থ হতেই ওনাকে দেখতে যাওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেছি। কারণ আমি কংগ্রেসের একজন সৈনিক। উনি দেশের জন্য কাজ করেছেন, প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তাই আমরা ওনাকে সম্মান করু। এটাই আমাদের সংস্কৃতি।”

একইসঙ্গে আদবানীর প্রসঙ্গও তুলে আনেন তিনি। আদবানীর জন্য কষ্ট হয় বলে মন্তব্য করেন তিনি। বলেন, ”প্রধানমন্ত্রী মোদীর গুরু ছিলেন আদবানী। কিন্তু আমি দেখেছি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী তাঁর গুরুকেও সম্মান জানান না। মোদীর থেকে আদবানী জি’কে কংগ্রেস বেশি সম্মান দেয়।”

সোমবার বাজপেয়ীকে দেখতে হাসপাতালে যান রাহুল গান্ধী। এর আগে রবিবার তাঁর সঙ্গে দেখা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ, এলকে আদবানী, রাজনাথ সিং, জেপি নাড্ডা প্রমুখ।

এইমসের পক্ষ থেকে সোমবার রাতে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর মেডিক্যাল বুলেটিন প্রকাশ করা হয়৷ তাতে মূত্রাশয়ে সংক্রমণের কথা উল্লেখ করা হয়েছে এবং বলা হয়েছে অটলবিহারী বাজপেয়ীকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে৷

সোমবার বিকালে এইমসে নিয়ে আসা হয় বাজপেয়ীকে৷ প্রথমে বলা হয়েছিল রুটিন চেক আপের জন্য তাঁকে নিয়ে আসা হয়েছে৷ প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর অবস্থা স্থিতিশীল৷ বাজপেয়ীর হাসাপাতালে ভরতির খবর পেয়ে একে একে ছুটে আসেন রাজনৈতিক নেতারা৷ ৯৩ বছর বয়সী অটল বিহারীকে দেখতে এইমসে যান কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ আসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ তিনি বাজপেয়ীর আত্মীয় পরিজনদের সঙ্গে কথা বলেন৷ ডাক্তারদের কাছ থেকেও তাঁর শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন৷ প্রায় ৫০ মিনিট এইমসে কাটান মোদী৷

----