১০০ টাকা রোজগার করতে রেলের খরচ হয় ১১১টাকা

নয়াদিল্লি: বিশ্বের একটি অন্যতম বড় সংস্থা হল ভারতীয় রেল। বিশ্বে আর কোনও সংস্থায় এত কর্মী একসঙ্গে কাজ করে না। তা সত্বেও, বারবার রেলের আর্থিক ক্ষতির বিষয়টি নজরে আসে।

আরও একবার জানা গেল, রেলের খরচের তুলনায় রোজগার কম। চলতি বছরের এপ্রিল থেকে জুলাই পর্যন্ত হিসেব বলছে, ১০০ টাকা রোজগার করতে ১১১.৫১ টাকা খরচ হচ্ছে। রেলের ফিনান্স বিভাগের হিসেব বলছে, বছরের প্রথম চার মাসে রেল রোজগার করেচে ১৭,২৭৩.৩৭ কোটি টাকা। টার্গেট ছিল ১৭,৭৩৬.০৯ কোটি টাকা। এপ্রিল থেকে জুলাইতেও রেলের রোজগার বেশ কম। ৩৯,২৪৩.৪১ কোটি টার্গেট সামনে রেখে রেল ৩৬,৪৮০.৪১ কোটি টাকা তুলতে পেরেছে। জুলাইয়ের শেষ পর্যন্ত রেলের মোট রোজগার ৫৬,৭১৭.৮৪ কোটি টাকা।

রেলের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, রেল চালানোর খরচ ছাড়াও আরও অনেক খরচ আছে, যার জন্য টার্গেট ছৌঁয়া সম্ভব হচ্ছে না।

কিছুদিন আগে, বাজে খরচ কমাতে রেলের এক নির্দেশে বলা হয়, কর্মী ও অফিসারদের আর বোতলবন্দি জল দেওয়া হবে না। বাড়ি থেকে আনা বা দফতরে বসানো বৈদ্যুতিন যন্ত্রের পরিশুদ্ধ জল খেতে হবে।

রেল সূত্রের খবর, ট্রেন ও স্টেশনে পানীয় জলের বোতলের দৈনন্দিন চাহিদার বেশির ভাগটাই মেটানো যায় না। অথচ দিল্লির রেল ভবনে কর্মী-অফিসারদের জন্য রোজ লাগে কমবেশি ১০০০ বোতল ‘রেল নীর’। রেলের সংস্থা আইআরসিটিসি-র প্ল্যান্টে তৈরি এক বোতল রেল নীরের দাম পড়ে প্রায় ১৫ টাকা। অর্থাৎ রেল ভবনে বোতলবন্দি রেল নীরের জন্যই রোজ খরচ হয় গড়ে ১৫ হাজার টাকা। সেই খরচ কমাতেই এই ব্যবস্থা।

----
-----