স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রাজ্যের বিস্তীর্ণ অংশে হতে পারে বৃষ্টি। এমনই পূর্বাভাস দিয়েছিল আবহাওয়া দফতর।

সেই পূর্বাভাসকে সত্যি করে বুধবার রাতের দিকে নামল বৃষ্টি। সঙ্গে দোসর রয়েছে ঝড়ো হাওয়া। রাত ১২ টা নাগাদ দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় শুরু হয়েছে বৃষ্টি।

Advertisement

বুধবারে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল যে আগামী ২৪ ঘন্টায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। পূর্ব মধ্য বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত নিম্নচাপ। মঙ্গলবার থেকেই এটি শক্তি ধারন করছিল। এই নিম্নচাপের লাগোয়া একটি ঘুর্ণাবর্ত রয়েছে। যার ফলে আগামী ২৪ ঘন্টায় আরও ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস হাওয়া অফিসের।

এদিন রাতের দিকে উত্তর ২৪ পরগণা এবং হুগলি জেলার বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক বৃষ্টি হয়। ঝড় এবং বৃষ্টির তীব্রতা মারাত্মক ছিল। যদিও তা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি।

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, এই মুহূর্তে ঘুর্নাবর্তের অবস্থান সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে ৭.৬ কিলোমিটার উপরে এর অবস্থান। আগামী ১২ ঘন্টায় এটি আরও ঘনীভূত হবে। এর জেরে ভারী বৃষ্টি হবে দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলী, দুই মেদিনীপুরে ও ঝাড়গ্রামে। ইতিমধ্যে জারি করা হয়েছে হলুদ সতর্কতা।

অন্যদিকে এর ফলে সমুদ্রে ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইবে বলে পূর্বাভাসে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। শুক্রবার দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। পরে নিম্নচাপটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে। বাকি ১২ ঘন্টায় সেটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে।

----
--