গোষ্ঠী সংঘর্ষে উত্তপ্ত আসানসোল-রানিগঞ্জ নিয়ে উদ্বিগ্ন রাজনাথ

নয়াদিল্লি: শিল্পনগরী আসানসোল-রানিগঞ্জের হিংসার ঘটনায় ইয়দ্বিগ্ন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। খুব শীঘ্রই ওই এলাকায় শান্তি ফেরাতে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতবার এনএফসিএইচ-এর গভর্নিং কাউন্সিলের বৈঠকে রানিগঞ্জের ঘটনা নিয়ে রাজনাথ সিং আলোচনা করেন অভিনেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে। সেই বৈঠকেই হিংসা কবলিত রানিগঞ্জ-আসানসোলের রিপোর্ট দেখেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এনএফসিএইচ কী? এটি একটি কেন্দ্রীয় সরকারি স্বশাসিত সংস্থা। যার পুরো নাম হচ্ছে ন্যাশনাল ফাউন্ডেশন অফ কমিউনাল হারমনি। দেশের সকল প্রান্তে যাতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অক্ষুণ্ণ থাকে সেদিকে নজর রাখা এই সংস্থার প্রধান কাজ।

- Advertisement -

একই সঙ্গে গোষ্ঠী সংঘর্ষের কারণে জখম মানুষদের সাহায্য এবং তাঁদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করার কাজও করে এনএফসিএইচ। হিংসায় আক্রান্ত শিশুরা মানসিকভাবেই বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। সেই সকল শিশুদের উপযুক্ত চিকিৎসা এবং তাদের শিক্ষার ব্যবস্থাও করে থাকে কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ এই সংস্থাটি।

পশ্চিমবঙ্গে থেকে এনএফসিএইচ-এর একমাত্র প্রতিনিধি হচ্ছেন অভিনেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। আসানসোল-রানিগঞ্জে হিংসার বিষয়ে জয়ের কাছে রিপোর্ট তলব করেন এনএফসিএইচ চেয়ারম্যান রাজনাথ সিং। সেই মোতাবেক চলতি মাসের দুই তারিখে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান জয় বাবু। এনএফসিএইচ-এর গভর্নিং কাউন্সিলের ২১ তম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় চলতি সপ্তাহের বৃহস্পতিবার।

সেই বৈঠকে হিংসা কবলিত আসানসোল-রানিগঞ্জের রিপোর্ট দেখেন রাজনাথ সিং। এই বিষয়ে জয় বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “হিংসা কবলিত এলাকার মানুষজন যাতে দ্রুত স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারে আমি সেই বিষয়টি দেখার আভেদন জানিয়েছি চেয়ারম্যান রাজনাথ সিং-কে। উনি উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।”

রানিগঞ্জের ঘটনা ছাড়াও রাজ্যের আন্তর্জাতিক সীমান্তবর্তী এলাকাগুলির সমস্যা নিয়েও রাজনাথ সিং-এর কথা হয়েছে জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তাঁর মতে, “সীমান্ত এলাকায় অনৈতিক পাচার বিশেষ করে গরু পাচার এবং অনুপ্রবেশ সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানের বিষয়েও ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন জানিয়েছিলাম। এই বিষয়ে সচিবালয়ের কর্তাদের সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। শুক্রবার সেই বৈঠক হয়েছে। আশা করি খুব শীঘ্রই সুফল মিলবে।”

উক্ত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রি স্মৃতি ইরানি। তিনিও এনএফসিএইচ-এর সদস্য। রাজ্যের সার্বিক অবস্থা নিয়ে তিনি একান্তে কথা বলেন জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে।

Advertisement
----
-----