জেলা জুড়ে অস্ত্র ছাড়াই পালিত হল রামনবমী

ক্যানিং: জেলা জুড়ে পালিত হল রামনবমী। বিভিন্ন জায়গায় হল মিছিল এবং শভাযাত্রা। উল্লেখযোগ্য বিষয় হচ্ছে কোথাও দেখা যায়নি কোনও অস্ত্র।

এমনই ছবি দেখে গিয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায়। রবিবার সকাল থেকেই ওই জেলার বিভিন্ন প্রান্তে ছোট বড় নানা আকারের রামনবমীর মিছিল দেখা গিয়েছে। অস্ত্র ছাড়াই শুধু মুখে ‘জয় শ্রী রাম’ শ্লোগান আর ‘ভারত মাতার জয়’ দিয়েই সমস্ত জায়গায় শোভাযাত্রা করেন সকলে।

রাজ্যের যে সকল এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে ঐতহ্য মেনে অস্ত্র নিয়ে রামনবমীর মিছিল হয় সেই সকল জায়গা ছাড়া অন্যত্র অস্ত্র নিয়ে মিছিলের অনুমতি দেওয়া যাবে না। আগে থেকেই এই কথা সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন মুহ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের সেই নির্দেশ মেনেই রামনবমীর শোভাযাত্রা এবং মিছিল হয়েছে সমগ্র দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা জুড়ে।

- Advertisement -

গত বছরে এই জেলাতেই রামনবমীর একাধিক মিছিলে দেখা গিয়েছিল অস্ত্র। এই বছরে সেই মিছিল বা শোভাযাত্রার সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে অনেকটাই। রবিবার সকালে সোনারপুর থানার বড়াল, গড়িয়া, হরিনাভি এলাকায় যেমন হয়েছে রামনবমীর মিছিল, তেমনি কুলতলি থানা এলাকার জামতলাতেও হয়েছে এই মিছিল। অন্যদিকে ক্যানিং থানার তালদিতে ও এই রামনবমীর শোভাযাত্রায় পা মেলান রাম ভক্তরা। রবিবার বিকেলে ক্যানিং শহর ও বারুইপুর শহরে দুটি বিশাল বড় শোভাযাত্রা বের করেন রাম ভক্তরা। সবকটি জায়গাতেই পুলিশি নিরাপত্তার সাথে পালিত হয় এই শোভা যাত্রা।

কেন্দ্রের শাসকদল ভারতীয় জনতা পার্টির সৌজন্যে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে নজরকাড়া রামনবমী উৎসব শুরু হয়েছে গত বছর থেকে। এই বছরে সেই উৎসবে অন্যান্য অনেক রাজনৈতিক দলই আয়োজন করেছে শ্রী রামের আরাধনা। এদিন জেলা জুড়ে রামনবমীর মিছিল অনুষ্ঠিত হলেও কোথাও তৃণমূল কংগ্রেসের কোন মিছিল অনুষ্ঠিত হয়নি।

দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায় রামনবমীর মিছিলে অস্ত্র না থাকলেও এই বছরের মিছিলে বহু মানুষ অংশ নিয়েছিলেন। সাধারণ মানুষের এই স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে খুশি রামনবমী উদযাপন কমিটির সদস্যরা। সবকটি শোভাযাত্রাই বিশাল পুলিশি নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে পালিত হয়।

Advertisement ---
-----