সাংবাদিক হত্যাকাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত স্বঘোষিত গডম্যান রাম রহিম

চন্ডীগড়: ফের খবরের শিরোনামে ধর্ষণে সাজাপ্রাপ্ত গুরু রাম রহিম সিং৷ এবার সাংবাদিক হত্যায় দোষী সাব্যস্ত করা হল তাঁকে৷ রাম রহিম ছাড়া শুক্রবার আরও তিনজনকে দোষী সাব্যস্ত করে বিশেষ সিবিআই আদালত৷ ১৭ জানুয়ারি রায় ঘোষণা৷

রাম রহিম ছাড়া বাকি তিন জন হলেন নির্মল সিং, কুলদীপ সিং এবং কিষাণ লাল৷ ৫১ বছরের স্বঘোষিত গডম্যান রাম রহিমকে এদিন রোহতক জেল থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আদালতে হাজির করানো হয়৷ ১৭ বছর আগে পুরানো মামলায় তাকে দোষী সাব্যস্ত করেন বিচারপতি৷ ওই মামলায় তিনিই ছিলেন মূল চক্রী৷

২০০২ সালের অক্টোবর মাসের ঘটনা৷ ‘পুরা সচ’ নামে এক সংবাদপত্রে রাম রহিমের আশ্রমে সাধ্বীদের যৌন হেনস্থার কাহিনী তুলে ধরেন নির্ভীক সাংবাদিক রাম চন্দ্র ছত্রপতি৷ সেই ‘অপরাধে’ তাঁকে গুলি করে খুন করা হয়৷ গুলিকে জখম হন তিনি৷ পরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে মারা যান ওই সাংবাদিক৷ ২০০৩ সালে সাংবাদিক হত্যার অভিযোগ দায়ের হয়৷ ২০০৬ সালে মামলাটি সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেওয়া হয়৷

রাম রহিমের প্রাক্তন গাড়ির চালক খাট্টা সিংয়ের বয়ান স্বঘোষিত গডম্যানকে বিপাকে ফেলে৷ সিবিআইকে তিনি জানান, রঞ্জিত সিং নামে এক অনুগামীর সঙ্গে সাংবাদিক খুনের ষড়যন্ত্র করে রাম রহিম৷ ২০০২ সালের ১০ জুলাই হয় তাদের মধ্যে হয় গোপন বৈঠক৷ খাট্টা সিং দাবি করেন, রাম চন্দ্র ছত্রপতিকে খুন করার নির্দেশ দেয় রাম রহিমই৷ স্বঘোষিত গডম্যানের হুমকির ভয়ে পরে এই বয়ান থেকে সরে আসেন সিং৷ তবে ২০১৮ সালের মে মাসে পুরনো বয়ানেই ফিরে আসেন তিনি৷

----