মুম্বই : ‘সঞ্জু’ ছবির ট্রেলার বেরোতেই রণবীরের গুণগানে একজোট হয়েছে গোটা সিনেদুনিয়া৷ অভিনেতার প্রশংসায় পঞ্চমুখ দর্শকমহল৷ রণবীরের অভিনয়ের ঝলকে দর্শক তাঁর সঙ্গে সঞ্জয় দত্তের অবিকল মিল পেয়েছেন৷ অভিনেতার চেহারাতেও সঞ্জয়ের ছোঁয়া পেয়েছেন সিনেপ্রেমীরা৷ অনস্ক্রিনে মিল পেতে পেতে অফস্ক্রিনেও সাদৃশ্য পাওয়া গেল তাঁদের চরিত্রে৷ সঞ্জয়ের ড্রাগ অ্যাডিকশনের সম্বন্ধে সকলেই জানেন৷ কিন্তু রিলের সঞ্জুও যে রিয়্যাল লাইফে নিকোটিন অ্যাডিক্ট তা কেউই জানতেন না৷ মাত্র ১৫ বছর বয়স থেকে নিকোটিন অ্যাডিক্ট ছিলেন রণবীর কাপুর৷ যে নেশা হাজার চেষ্টা করেও ছাড়তে পারছিলেন না তিনি৷ সুদূর অস্ট্রিয়া উড়ে গিয়েছিলেন চিকিৎসার জন্য৷ তবে সমালোচনা করার বদলে নিজের নিকোটিন অবসেশনের কথা জনসমক্ষে শেয়ার করার জন্য তাঁর সাহসের বাহবা দিচ্ছেন সকলে৷

আরও পড়ুন : নাসায় পাড়ি কিং খানের

Advertisement

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, “চার মাস হল আমি স্মোকিং ছেড়েছি৷ তবে ছেড়েছি বললে ভুল হবে৷ শেষ মাসেই এক-দুবার করে ফেলেছিলাম স্মোক৷ আসলে আমার এই বিষয়টা নিয়ে একটা ভয় কাজ করে কারণ ১৫ বছর বয়স থেকে আমি নিকোটিন অ্যাডিক্ট হয়ে গিয়েছিলাম৷ সবথেকে খারাপ কোনও নেশা যদি কিছু থেকে থাকে তাহলে নিকোটিনই হল সেটা৷ আমি নিজে থেকে নেশাটা ছাড়তে পারছিলাম না বলে আমায় অস্ট্রিয়া যেতে হয়েছিল৷ সেখানে ডাক্তার আমার কানে ইনজেকশন পুশ করতেন৷ প্রথমদিকে এই ট্রিটমেন্টটা আমায় বেশ খানিকটা সাহায্য করেছিল৷ কিন্ত পরে বুঝলাম নেশা ছাড়া আমার পক্ষে অসম্ভব৷ এই পদ্ধতিতে ছাড়তে গিয়ে নেশাটা আরও জেঁকে বসল আমার ওপর৷”

আরও পড়ুন : শ্যুটিং করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় মৃত্যু পরিচালকের

এই একই সাক্ষাৎকারে রণবীর নিজের লেডি লাভ আলিয়ার কথা স্বীকার করেছিলেন৷ তাঁদের সম্পর্কের কথা জিজ্ঞেস করলে অভিনেতা জানান, “এখন পুরো ব্যাপারটা খুবই নতুন৷ এ ব্যাপারে বেশি কিছু বলতে চাই না৷ এখন সম্পর্কটার একটু সময় চাই, স্পেস চাই৷ আলিয়া এমন একটা মানুষ যার কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে৷ আমাদের জন্য সম্পর্কটা খুব নতুন৷ ঠিক সময় এলেই সবাই সব জানতে পারবে৷”

----
--