বেপরোয়া বাইক চালকের সঙ্গে বচসায় প্রহৃত দুই কিশোর

ছবি: প্রতীকী

স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: বেপরোয়া বাইক চালানোর প্রতিবাদ করায় ঝামেলা৷ সেই ঝামেলা দেখতে গিয়ে আক্রান্ত হল দুই কিশোর৷ আহত দুই কিশোরকে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে৷ ঘটনাটি ঘটেছে পুরাতন মালদহের কোর্টা স্টেশনে৷ অভিযুক্ত যুবক পলাতক৷ তাঁর খোঁজে পুলিশ৷

আরও পড়ুন: ভুতনিতে শুরু নদীর ভাঙন

আহত দুই কিশোরের নাম উত্তম কর্ম (১৭) ও নিমাই মণ্ডল(১৪)। কোর্টা স্টেশন এলাকারই বাসিন্দা তারা৷ অভিযোগ, এলাকায় সন্টু মণ্ডল নামে এক যুবক রোজই বেপরোয়াভাবে বাইক নিয়ে ঘোরাঘুরি করে৷ বাইকের গতি এতটাই বেশি থাকে যে, যেকোনও সময় বড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে৷

অভিযোগ, শুক্রবারও দ্রুত গতিতে বাইক চালাচ্ছিলেন সন্টু৷ স্থানীয় বিশু মণ্ডল তার প্রতিবাদ করেন৷ এই নিয়ে দু’জনের মধ্যে বচসা চরমে ওঠে৷ উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় শুরু হয়৷ উত্তম, নিমাই সেই ঝামেলা দেখে এগিয়ে যায়৷ অভিযোগ, সেই সময় সন্টু মণ্ডল ওই দুই কিশোরকে ব্যাপক মারধর করে।

আরও পড়ুন: যুগলের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার

পরিস্থিতি ঘোরালো দেখে এগিয়ে আসেন স্থানীয়রা৷ বিপদ বুঝে এলাকা ছেড়ে পালায় সন্টু৷ আহত দুই কিশোরকে উদ্ধার করে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। স্থানীয়রা জানান, এটা নিত্যদিনের ঘটনা৷ ওই যুবক অত্যন্ত বাজে ভাবে বাইক চালিয়ে জনবহুল এলাকা দিয়ে যাতায়াত করে৷ বহুবারই তাঁকে সতর্ক করা হয়েছে৷

কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি৷ বদলে দিনে দিনে আরও বেপরোয়া হয়ে উঠছে৷ এদিনের ঘটনায় মালদহ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়৷ তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷

আরও পড়ুন: BREAKING- ভয়াবহ তালিবানি হামলায় নিহত সেনা