ঋণদাতার মর্যাদা পাচ্ছে আবাসনের ক্রেতারা

ফ্ল্যাট বা বাড়ি কেনার জন্য টাকা দেওয়ার পর তা না হাতে পেলে বড় অসহায় বোধ করতেন ক্রেতারা৷ টাকা বা সম্পত্তি উদ্ধার করতে রীতিমতো বেগ পেতে হত তাদের৷ এবার নয়াবিধির ফলে বেশ কিছুটা স্বস্তি দেবে ক্রেতাদের৷ কারণ সময় মতো ফ্ল্যাটের চাবি তুলে না দিলে তাদের ক্রেতাদের ঋণদাতা সমতুল্য হিসেব গণ্য করা হবে৷ কারণ আবাসন সংস্থাটি দেউলিয়া বিধির মধ্য দিয়ে গেলে তখন আগের তুলনায় ক্রেতাদের টাকা উদ্ধার সহজ হবে৷

বুধবার এক অডিন্যান্সের মাধ্যমে দেউলিয়া বিধির সংশোধন প্রস্তাব অনুমোদন করে মন্ত্রিসভা৷ এর ফলে নয়া অধিকার পাচ্ছে আবাসনের ক্রেতারা৷ এবার থেকে কোনও আবাসন সংস্থা দেউলিয়া প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যায় তখন টাকা ফেরতের ব্যাপারে ক্রেতারা ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মতো অগ্রাধিকার পাবে৷ আগে দেউলিয়া বিধিতে বকেয়া আদায়ের ক্ষেত্রে আবাসন সংস্থার ক্রেতাদের ‘আনসিকিওরড ক্রেডিটর’ হিসেবে দেখা হত৷ ফলে ওই আবাসন সংস্থাটি দেউলিয়ার প্রক্রিয়ার সময় আগে ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বকেয়া মেটান হত তারপর কিছু অবশিষ্ট থাকলে তা থেকে দেওয়া হত ক্রেতাদের৷

বিশেষজ্ঞদের অভিমত আবাসন ক্রেতাদের ঋণদাতার মর্যাদা না দেওয়া হলে কোনও আবাসন সংস্থা নিজেক দেউলিয়া ঘোষণা করলে তখন দেউলিয়া বিধি এবং রিয়েল এস্টেট রেগুলেশন অ্যাক্ট পরস্পর বিরোধী হয়ে যাবে৷ কারণ রিয়েল এস্টেট রেগুলেশন অ্যাক্ট-এর উদ্দেশ্যই হল আবাসন ক্রেতাদের স্বার্থ সুরক্ষা হচ্ছে কি না তা দেখা৷

Advertisement
-----