নিখোঁজ ছাত্রের দেহ উদ্ধারে চাঞ্চল্য

স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: দু’দিন নিখোঁজ থাকার পর নিজের বাড়ির কুয়োতে মিলল দশম শ্রেণির এক ছাত্রের দেহ। মৃতের নাম ভোলানাথ গরাই (১৫)। ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার গঙ্গাজলঘাটি থানার লছমনপুর গ্রামে।

অভিযোগ, ভোলানাথ গরাই নামে ওই ছাত্রকে সোমবার রাত থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরিবারের তরফে সব জায়গায় খোঁজাখুঁজি করা হয়৷ কিন্তু তাঁদের ছেলেকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে দাবি৷ অবশেষে পরিবারের তরফে গঙ্গাজলঘাটি থানাতে একটি নিখোঁজ ডায়েরি করা হয়৷ তারপরেও ওই ছাত্রের সন্ধান না মেলায় পরিবারের লোকেদের মধ্যে দুশ্চিন্তা বাড়তে থাকে।

পরে বুধবার নিজেদের বাড়ির কুয়োতেই ওই ছাত্রের মৃতদেহের সন্ধান মেলে। প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে কুয়োয় ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছে ওই ছাত্র। কিন্তু ঠিক কি কারণে এমন ঘটনা বুঝে উঠতে পারছেন না পরিবারের কেউ।

- Advertisement -

মৃতের বাবা লালচাঁদ গরাই বলেন, ‘‘গত পরশু থেকে তার ছেলে নিখোঁজ ছিল। সোমবার রাতে খাওয়া দাওয়ার পর ছেলেকে ঘুমিয়ে যাওয়ার কথা বললেও সে আরও কিছুক্ষণ পড়াশোনা করবে বলে জানায়। তারপর সকাল থেকে কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি ছেলের। বিষয়টি পুলিশকে জানাতে বাধ্য হই।’’ তিনি জানান, এরপর পরিবারের তরফেও বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ শুরু হয়। বুধবার তাঁর বাবা অর্থাৎ মৃত ছাত্রের দাদু কুয়োতে জল তুলতে গেলে নাতির দেহ ভাসতে দেখেন।

খবর পেয়ে গঙ্গাজলঘাটি থানার পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে৷ দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এই ঘটনায় গরাই পরিবার সহ লছমনপুর গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।