স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: এলাকায় পানীয় জলের দাবিতে আজ সকাল দশটা থেকে চারঘণ্টারও বেশি সময় পথ অবরোধ করল কোচবিহার গোপালপুর গ্রামপঞ্চায়েতের বিভিন্ন এলাকার মানুষরা৷ ছাগলবেড় চৌপথিতে চলা এই অবরোধে বানেশ্বর থেকে পুন্ডিবাড়ি সড়ক অবরুদ্ধ হয়ে পরে। পরে বিডিও এসে আশ্বাস দিলে অবোরোধ তুলে দেন স্থানীয় মানুষজন।

বেশ কয়েক মাস ধরেই গোপালপুর গ্রামপঞ্চায়েতের ইকরচালা, ছাগলবেড়, দক্ষিণ গোপালপুর ইত্যাদি অঞ্চলগুলিতে পানীয় জলের সমস্যায় জেরবার এলাকাবাসীরা। নিজেদের এলাকায় জল নাথাকায় পাশের এলাকা থেকে পানীয় জল বহন করে নিয়ে আসতে হচ্ছে এলাকাবাসীদের। আবার কেউ কেউ জন কিনে খাচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে কয়েকদিন আগে এলাকার টাইম কলগুলি চালুর দাবিতে গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান বৃন্দা কার্যিকে ডেপুটেশন দেন স্থানীয় মানুষজন। কিন্তু কোন কাজ না হোওয়ায় আজ পথ অবরোধ করেন স্থানীয়রা।

এলাকাবাসী দেবদ্রত দাস অভিযোগ করেন প্রায় এক বছর আগে সোনারিতে একটি পাম্প বসায় পিএইচ ই , সেই পাম্প থেকে ইকরচালা, ছাগলবেড়, দক্ষিণ গোপালপুর ইত্যাদি অঞ্চল গুলিতে জল দেবার কথা থাকলেও আজও তা দেওয়া হল না। এই নিয়ে গত এক বছর ধরে আবেদন নিবেদন করছেন এলাকাবাসীরা, কোন লাভ না হওয়ায় আজ তাঁরা বাধ্য হয়েই পথ অবরোধ করেন তাঁরা। স্থানীয় বাসিন্দা দীপক দাস বলেন, ‘‘এই জলপ্রকল্পর কাজ শেষ হয়নি, এক বছর ধরে এই ভাবেই ফেলে রাখা হয়েছে এই পাম্পটি।’’

এই বিষয়ে প্রধানকে জানানো হলে তিনি এই বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন দাবি দীপক দাসের। এদিন পথ অবোরধকারীদের সঙ্গে কথা বলতে যান প্রধান৷ এছাড়াও যান কোচবিহার ২ নম্বর ব্লকের বিডিও জর্জ লেপচা। বিডিওর আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় এলাকাবাসীরা। আগামিকাল থেকেই এলাকায় পানীয় জল দেনার কাজ শুরু হবে বলে বিডিও জানিয়েছেন। এই ব্যাপারে প্রধানকে প্রশ্ন করা হলে তিনি দাবি করেন রাস্থা সম্প্রসারণের জন্য অনেক জলের পাইপ খোলা হয়েছে, কিন্তু দির্ঘ দিন থেকে তা না লাগানোর ফলে এই সমস্যা। তাঁর দাবি এই ব্যাপারে পিএইচই কে বারে বারে জানানো হলেও কিছু হয়নি।

----
--