তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: ঘূর্ণাবর্তের জেরে ধারাবাহিক বৃষ্টিতে বাঁকুড়ার স্বাভাবিক জনজীবন ব্যাহত। জেলার উত্তর থেকে দক্ষিণ, পূর্ব থেকে পশ্চিম বুধবার রাত থেকেই মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই বৃষ্টির তীব্রতা বাড়তে শুরু করেছে। খুব প্রয়োজন ছাড়া মানুষ বাড়ি থেকে বাইরে বেরোচ্ছেননা। রাস্তায় যানবাহনও কম চলছে। যে কটি বেসরকারি বাস রাস্তায় নেমেছে তাতে যাত্রী সংখ্যা নেই বললেই চলে। স্কুল-কলেজগুলিতেও ছাত্র ছাত্রীদের উপস্থিতি হাতে গোনা।

আরও পড়ুন: চিনা-মাদক কাণ্ডে সিল করা ফ্ল্যাট ফের হানা দিল সিআইডি

এদিন বাঁকুড়া-ঝাড়গ্রাম রাজ্য সড়কের উপর ওন্দার নতুনগ্রামের এক ব্যবসায়ী চিত্তরঞ্জন প্রতিহার বলেন, অল্প বৃষ্টিতেই রাস্তার উপর জল জমে যায়। ফলে ছাত্র ছাত্রী থেকে সাধারণ মানুষ সকলেই সমান অসুবিধায় পড়েন। একই অভিজ্ঞতার কথা শোনালেন স্থানীয় বাসিন্দা রুক্ষ্মিনী মাল। তিনি বলেন, অল্প বৃষ্টিতেই পুরো এলাকা জলমগ্ন। ফলে সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়ছেন ব্যবসায়ীরা। স্থানীয় পঞ্চায়েতকে বিষয়টি জানিয়েও সমস্যার কোনও সমাধান হয়নি বলে তাঁর অভিযোগ।

বাঁকুড়া শহরের অবস্থাও তথৈবচ। শহরের বিভিন্ন জায়গায় জল জমে নাগরিক পরিষেবা ব্যাহত। সমস্যায় পড়ছেন জেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে কাজে আসা অসংখ্য সাধারণ মানুষ। একই সঙ্গে জেলার শিলাবতী, কংসাবতী সহ অন্যান্য নদী গুলিতে জলস্তর বাড়তে শুরু করেছে।

আরও পড়ুন: বিবাহের তিন বছর, আজ দু’ই প্রান্তে সৌরভ-মধুমিতা

এইভাবে আরও কয়েক ঘন্টা টানা বৃষ্টি হলে বেশ কয়েকটি নদীর নিচু সেতু ও কজওয়েগুলি জলের তলায় যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষকে আতঙ্কিত না হতে অনুরোধ করা হয়েছে।

দেখুন ভিডিও:

জেলা প্রশাসনের এক আধিকারিক বলেন, প্রশাসন সব ধরণের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত রয়েছে। অযথা আতঙ্কিত না হতেও তিনি আবেদন জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: জিমে শরীরচর্চা করতে এক টাকাও লাগবে না প্রাতঃভ্রমণকারীদের

----
--