জেলের নাম শুনলেই মানসিক অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়ছেন লালু

ফাইল ছবি

রাঁচি: বিহারের একসময়ের দোর্দণ্ডপ্রতাপ রাজনৈতিক নেতা লালু প্রসাদ যাদব ইদানিং মানসিক অবসাদে ভুগছেন৷ জেলের নাম শুনলে তাঁর অবসাদ নাকি আরও বেড়ে যাচ্ছে৷ বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর কিডনি ও হার্টের রোগের থেকেও মনের ব্যামো সাড়ানো কঠিন ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে রাঁচির রাজেন্দ্র ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সের (আরআইএমএস) চিকিৎসকদের কাছে৷ আরআইএমএসের ডিরেক্টর আর কে শ্রীবাস্তবকে এমনই রিপোর্ট দিয়েছেন চিকিৎসকরা৷

আরআইএমএসের ডিরেক্টর আর কে শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, মানসিক অবসাদে ভোগা শুরু করেছেন লালু প্রসাদ যাদব৷ যবে থেকে তিনি জেলে গিয়েছেন তবে থেকেই তাঁর এই রোগ দেখা দিয়েছে৷ এমনকী চিকিৎসার সময় তিনি যখন এইমসে ভরতি ছিলেন সেখানকার ডাক্তাররাও মেডিক্যাল ডিসচার্জ স্লিপে লালুর মনোরোগের কথা উল্লেখ করেছিলেন৷ ডঃ শ্রীবাস্তবের কাছে জানতে চাওয়া হয়, তাহলে কি লালুর রোগ সাড়াতে মনোরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ চাওয়া হবে? উত্তরে তিনি জানান, এই বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি৷

এ দিকে একাধিক মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, লালুর স্বাস্থ্য অবনতির প্রভাব পড়তে শুরু করেছে তাঁর পারিবারিক জীবনেও৷ তাঁর দুই ছেলের মধ্যে কে হবে দলের পরবর্তী মুখ সেই নিয়ে দলের মধ্যে তৈরি হয়েছে দুটি শক্তিশালী শিবির৷ যদিও দলের একটা বড় অংশ ছোট ছেলে তেজস্বীকে লালুর যোগ্য উত্তরাধিকারি মনে করেন৷ দুই ছেলের মধ্যে লালুরও পছন্দ তেজস্বীকেই৷ ছোট ছেলের প্রতি বাবার টান ভালোই বুঝতে পারেন তেজও৷ এই নিয়ে মাঝে মধ্যেই দুই ভাইয়ের ঠাণ্ডা যুদ্ধ প্রকাশ্যে এসে পড়ে৷ পারিবারিক এই সমস্যাও লালুর মানসিক অবসাদের অন্যতম কারণ হতে পারে বলেও মনে করছেন চিকিৎসকরা৷

Advertisement
---