হায়দরাবাদ: সীমান্ত পেরিয়ে অবৈধ উপায়ে ভারতে প্রবেশ করেছে রোহিঙ্গারা। এই অপরাধের পরেই অবশ্য শেষ হয়ে যায়নি রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারীদের অনৈতিক ক্রিয়াকলাপ। কারচুপি করে নাম তোলা হয়ে গিয়েছে ভোটার তালিকাতেও।

আরও পড়ুন- আমেরিকা চুক্তি থেকে সরলে ক্ষেপণাস্ত্র উৎপাদন শুরু করবে রাশিয়া: পুতিন

ভাওটার তালিকায় নাম তুলে হাতে ভোটার কার্ডও পেয়ে গিয়েছে অনেক রোহিঙ্গা। যা দিয়ে প্যান কার্ড বা আধার কার্দ করে ফেলেছে কিনা তা এখনও জানা যায়নি। তেলেঙ্গানা রাজ্যে তবে এই ভোটার কার্ডধারি রোহিঙ্গাদের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন- তৃণমূল-সিপিএমের সঙ্গে ‘মিছিলের হাঁটায়’ পাল্লা দিতে পারল না প্রদেশ কংগ্রেস

শুক্রবারে তেলেঙ্গানায় অনুষ্ঠিত হবে বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। প্রশাসনের পক্ষ থেকে আশংকা করা হচ্ছে যে অবৈধ উপায়ে ভোটার তালিকায় নাম তোলা রোহিঙ্গারা ভোটার কার্ড নিয়ে ভোট দেওয়ার জন্য লাইনে দাঁড়াতে পারে। তেমন কিছু ঘটলে রোহিঙ্গাদের ভোটের লাইন থেকেই গ্রেফতার করা হবে।

আরও পড়ুন- ‘দিদির’ পথেই ববি, পুরসভা থেকে পায়ে হেঁটেই দমকল দফতরে মন্ত্রী

হায়দরাবাদের পুর নিগমের পক্ষ থেকে রোহিঙ্গাদের সম্পর্কে এই কড়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পুর নিগমের এলাকায় থাকা ১০৫ জন রোহিঙ্গাকে ইতিমধ্যেই চিহ্নিত করা হয়েছে। তাদের উপরে কড়া নজর রাখা হচ্ছে। শুক্রবার কোনও বুথে ভোট দিতে গেলেই তাদের গ্রেফতার করা হবে বলে জানিয়েছেন হায়দরাবাদের পুলিশ কমিশনার আঞ্জানি কুমার।

আরও পড়ুন- সক্রিয় আগ্নেয়গিরি জয় করে বিশ্বরেকর্ডের পথে বাঙালি পর্বতারোহী

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে যে মায়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের মধ্যে অনেকেই ভোটার লিস্টে নাম তুলতে সক্ষম হয়েছে। কারচুপি করে প্রায় ১৯০ জন নিজেদের ভোটার কার্ড তৈরি করে ফেলেছে।

আরও পড়ুন- জানেন দীপিকার ওয়েডিং লুকের জন্য ১৬০০০ ঘণ্টার পরিশ্রম লেগেছে

২০১২ সাল থেকে বহু মানুষ মায়ানমার থেকে ভারতে আসতে শুরু করেছে। হায়দরাবাদ এবং সংলগ্ন এলাকায় তাদের আনাগোনা শুরু হয় আরও এক বছর পরে ২০১৩ সাল থেকে। তথ্য অনুসারে এই মুহূর্তে ৫০২৫ জন রোহিঙ্গা বাস করছে। যাদের মধ্যে অনেকের কাছে রাষ্ট্র সংঘের পরিচয়পত্র রয়েছে।

--
----
--