রয়্যাল বেঙ্গলের দাঁত পাচার করতে গিয়ে জালে তিন

স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: ফের বন্যপ্রাণীর দেহাংশ পাচারের অভিযোগে এক মহিলা সহ তিন পাচারকারীকে গ্রেফতার করল বনবিভাগ দফতরের আধিকারিকরা৷ মঙ্গলবার রাতে জলপাইগুড়ির চালসা এলাকা থেকে একটি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের দুটি দাঁত সহ তিন জনকে গ্রেফতার করেছে বৈকুন্ঠপুর বনবিভাগ।

স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের প্রধান তথা বনবিভাগের বেলাকোবা রেঞ্জের রেঞ্জ অফিসার সঞ্জয় দত্ত জানান, ভুটান থেকে এই দাঁত নেপালে পাচারের ছক কষেছিল পাচারকারী দল।

আরও পড়ুন: বাইকে করে মৃত মাকে নিয়ে হাসপাতালে গেল ছেলে!

- Advertisement -

চার ইঞ্চি লম্বা এই দাঁত দুটো দুই লক্ষ টাকায় বিক্রি করা হবে বলে প্রাথমিক জেরায় ধৃতরা জানিয়েছে। এই পাচারের সঙ্গে জড়িত অন্যান্যদের খোঁজেও তল্লাশি শুরু হয়েছে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, বনদফতরের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের অভিযানে জলপাইগুড়ি জেলার চালসা রোড থেকে উদ্ধার রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের দুটি দাঁত৷ সঙ্গে গ্রেফতার তিন পাচারকারীর একটি দল।

তবে এই প্রথম কোনও মহিলা সরাসরি পাচার কার্যের সঙ্গে যুক্ত থাকায় রীতিমতো চিন্তার ভাজ পড়েছে বন দফতরের কপালে৷ মঙ্গলবার রাতে গোপন খবরের ভিত্তিতে চালসা রাজ্য সড়কে ঘাঁটি গেরে বসেছিল বন দফতরের কর্মী ও টাস্ক ফোর্স।

আরও পড়ুন: BREAKING- ভেঙে পড়ল হেলিকপ্টার, নিহত ২

উল্লেখ্য, চালসা মোড়ের পাচারকারীরা বাসে করে নেপালের উদ্দেশ্যে যাবার চেষ্ঠা চালাচ্ছিল বলে অনুমান। তবে বনদফতরের কর্মীদের উপস্থিতি বুঝতে পেরে পালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করে সকল পাচারকারীরা। কিন্তু ঠিক এই সময়েই বনদফতরের কর্মীরা পাচারকারীদের ধরে ফেলে৷ তাদের থেকে একটি ব্যাগও উদ্ধার করা হয়৷ সেই ব্যাগ খুলতেই বন দফতরের কর্মীরা দেখতে পায় বাঘের দুটি দাত।

এরপর বন দফতরের আধিকারিক সঞ্জয় দত্ত জেরা করে জানতে পারেন, ভুটান থেকে নেপালে পাচারের উদ্দেশ্যে জড়ো হয়েছিল এই তিন পাচারকারী। এদের মধ্যে এক মহিলাও রয়েছে। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান বাঘের চামড়াও এদের কাছে রয়েছে। তবে কোথা থেকে এই দাঁত আসল তা ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে বন দফতরের আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে নিজের ফেভারিট বাছলেন সচিন

Advertisement
---