বাড়ি থেকে পালানোর ছক বানচাল করল আরপিএফ

স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: বাড়ি ছেড়ে বন্ধুদের সঙ্গে পালানোর পরিকল্পনা ছিল বছর এগারোর নাবালকের৷ কিন্তু শেষ রক্ষা হল না৷ রেল পুলিশের হাতে ধরা পড়ে গেল রিপণ মণ্ডল নামে ওই নাবালক৷ ট্রেনে তল্লাশি চালানোর সময় এক নাবালককে উদ্ধার করে বাঁকুড়ার সোনামুখী রেলওয়ে প্রোটেকশন ফোর্স৷

আরও পড়ুন: কলকাতার কোন কলেজে কবে ফর্ম-কীভাবে পাবেন জানুন

সোনামুখী আরপিএফ সূত্রে খবর, সোনামুখী স্টেশনে শুক্রবার সকালে আপ বাঁকুড়া-মশাগ্রাম ট্রেনটি দাঁড়িয়েছিল৷ সেই ট্রেনেই আরপিএফ সোনামুখী পোস্ট ইনচার্জ রাকেশ কুমারের নেতৃত্বে বিশেষ অভিযান চলে৷ ছিলেন আরপিএফ-এর বিরাট টিম৷ মহিলা ও শিশু সুরক্ষার জন্য এই বিশেষ তল্লাশিতেই সোনামুখী স্টেশন থেকে উদ্ধার করা হয় এগারো বছরের রিপণ৷

- Advertisement DFP -

আরও পড়ুন: টাকার বিনিময়ে ভর্তির প্রতারণা কলেজে, ধৃত এক

সোনামুখী আরপিএফ পোস্ট ইনচার্জ রাকেশ কুমার জানান, ট্রেনে তল্লাশি চালানোর সময় ওই ছেলেটিকে দেখে তাঁদের সন্দেহ হয়৷ এরপরই নানা প্রশ্ন করতে থাকেন রেল পুলিশ কর্মীরা৷ জেরায় জেরায় ওই নাবালক তার পরিচয় দেয়৷ জানায়, নাম রিপণ মণ্ডল৷ দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসিন্দা৷ বন্ধুদের সঙ্গে পরিকল্পনা করেই বাড়ি থেকে বৃহস্পতিবার রাতে পালিয়ে আসে৷

আরও পড়ুন: উত্তপ্ত কাশ্মীরে সেনার গুলিতে মৃত যুবক, জখম মহিলা

আরও পড়ুন: সাংবাদিকতার ফের পরীক্ষার দিন জানালো কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

এরপরই বাড়ির যোগাযোগ নম্বর দেয় সে৷ রেল পুলিশের তরফে রিপণের বাবা কানাই মণ্ডলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়৷ বৃহস্পতিবার রাতে তার বাবার হাতে তুলে দেওয়া হয় রিপন মণ্ডলকে৷ কানাই মণ্ডল বলেন, তাঁর ছেলে বন্ধুদের পাল্লায় পড়েই বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়েছিল৷ কোথায় যাচ্ছিল, কী বৃত্তান্ত তা এখনই জোর দিয়ে জানতে চাইছে না৷ বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে গিয়ে ধীরেসুস্থে সব জানবেন৷ রেল পুলিশের সৌজন্যে ছেলেকে খুঁজে পেয়ে তিনি খুশি৷

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের মাঝে রোনাল্ডোর দু’বছরের জেল!

Advertisement
----
-----