‘রাশিয়ার গোয়েন্দা পিছনে লুকিয়ে ছিল একাধিক ইজরায়েলি এফ-১৬’

মস্কোঃ  সিরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা থেকে বাঁচতে ইজরায়েলের কয়কটি এফ-১৬ বোমারু বিমান রাশিয়ার গোয়েন্দা বিমান আইএল-২০ বিমানের আড়ালে লুকিয়েছিল। ফলে সিরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে রাশিয়ার বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার জন্য ইজরায়েলই দায়ী। রাশিয়ার এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার রাডারের তথ্যের ভিত্তিতে এমনটাই জানাচ্ছে রুশ প্রতিরক্ষা দফতর। সিরিয়ার হেমেইমিম বিমানঘাঁটিতে রুশ এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন রয়েছে।

এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার রাডারের তথ্য অনুযায়ী সিরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র প্রকৃতপক্ষে ইজরায়েলে একটি এফ-১৬ বিমানকে টার্গেট করেছিল। কিন্তু আকস্মিকভাবে ক্ষেপাস্ত্রটি তার গতিপথ পরিবর্তন করে এবং রুশ বিমানে আঘাত হানে।

রুশ প্রতিরক্ষা দফতরের মুখপাত্র মেজর জেনারেল ইগোর কোনাশেংকভ বলেছেন, এই ঘটনা এবং ১৭ সেপ্টেম্বরের ঘটনার মুহূর্তে ইযরায়েলি বিমানগুলোর অবস্থান এই কথাই প্রমাণ করছে যে, রাশিয়ার বিরাট বিমানটিকে ইজরায়েলিই বিমানগুলো ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছিল। তিনি জোর দিয়ে বলেন, রাডার ইমেজ থেকে সিরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রের গতিপথ এবং ইজরায়েল ও রুশ বিমানের অবস্থান পরিষ্কারভাবে চিহ্নিত হয়েছে।

Advertisement ---
---
-----