মার্কিন নৌবহর রুখতে মাঝ সমুদ্রে এগিয়ে যাচ্ছে ১১ রুশ জাহাজ

দামাস্কাস ও মস্কো: সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ কী সত্যি দুই বৃহত্তম শক্তিকে ফের যুদ্ধের আসরে নামিয়ে দেবে ? উঠে গেল এই প্রশ্ন৷ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের খবর, মার্কিন নৌবহরকে রুখতে ১১টি রুশ যুদ্ধজাহাজের গতিমুখ পরিবর্তন করল। ফলে তোলপাড় হতে শুরু করেছে ভূমধ্যসাগরের নীল জল৷ সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধের পরিস্থিতিতে ওয়াশিংটন সরাসরি সেখানকার বিদ্রোহীদের পক্ষ নিয়েছে। আর সিরিয়া সরকারের পক্ষ নিয়ছে রাশিয়া। ইতিমধ্যেই রাশিয়ার দিকে মিসাইল হামলার হুমকি দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তারপরই ক্রেমলিনের নির্দেশে ভূমধ্যসাগরে তোলপাড় শুরু করল রুশ নৌবহর।

এরই মাঝে সিরিয়ার সরকার বিদ্রোহীদের এলাকায় রাসায়নিক হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ৷ এতে বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে৷ তারই জেরে মার্কিন প্রসিডেন্ট সিরিয়ার দিকে নৌ বাহিনীকে অগ্রসর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন৷ ওয়াশিংটন থেকে এই বার্তা ছড়িয়ে পড়তেই নড়ে চড়ে বসে ক্রেমলিন৷

- Advertisement -

স্যাটেলাইট সিগন্যালে ধরা পড়েছে রুশ নৌবহরের গতি প্রকৃতি৷ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম এই ছবি প্রকাশ করেছে৷ দাবি করা হয়েছে, ভূমধ্যসাগরে সিরিয়ার তারতাস বন্দরে মোতায়েন রুশ নৌবহরের মধ্যে ১১টি বন্দর ছেড়ে গিয়েছে৷ এর জেরে পরিস্থিতি আরও ঘোরালো হল৷ এদিকে ক্রেমিলেনের ওয়ার রুমে এখন প্রবল ব্যস্ততা৷ নৌ প্রধানকে ডেকে বিশেষ বার্তা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট পুতিন৷ তবে এই খবরের সূত্র বলা হয় নি৷

 

Advertisement ---
-----