ওয়ালমার্টে এবার নিজের ব্র্যান্ডের খেলনা নিয়ে হাজির ৬ বছরের মিলিওনেয়ার

নয়াদিল্লি: বয়স মাত্র ৬, কিন্তু তাতে কি৷ মাত্র তিন বছর বয়স থেকে খেলার ছলেই মিলিওনেয়ার হয়ে ওঠে ছোট্ট রায়ান৷ বাবা-মা কি ঘুণাক্ষরেও ভাবতে পেরেছিলেন এতো ছোট বয়সেই আন্তর্জাতিক স্তরে নাম পৌঁছে যাবে রায়ানের? তাকে চিনবে বিশ্বের অগণিত মানুষ৷

কিন্তু কতটা কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে? উত্তর, শুধুমাত্র মন দিয়ে খেলনা নিয়ে খেলেছে রায়ান, আর সেই খেলনা নিয়েই রিভিউ দিয়েছে, তার যা মনে হয়েছে ঠিক সেই সেই কথাই বলেছে৷ আর তার এই বক্তব্য রেকর্ড করে তার অভিভাবক ইউটিউবে তা পোস্ট করতে থেকেছেন৷ ব্যস, আর কি৷ এরপরেই সেই ভিডিও দেখা এবং সাবস্ক্রাইব করার সংখ্যা দিনে দিনে লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে৷ আর রায়ানেরও ব্যাংক ব্যালেন্স ফুলে ফেঁপে উঠেছে একটু একটু করেই৷ গত বছরই সে ১১ মিলিয়ন ডলার উপার্জন করেছে৷

- Advertisement -

যারা খেলনা এবং ইউটিউব নিয়ে একটু নাড়াচাড়া করেন তাদের কাছে এই নাম নতুন নয়৷ মাত্র ছয় বছরেই সে ইউটিউব স্টার৷ গত ইউটিউবে বেস্ট পেইড-দের মধ্যে তার স্থান ছিল অষ্টমে৷ এবং তার সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যা ১৫ মিলিয়নেরও বেশি৷ বাজারে নতুন নতুন খেলনা নিয়ে তার রিভিউ জানার জন্য হা পিত্যেশ করে বসে থাকে কোটি কোটি মানুষ৷ আবার কেউ ছোট্ট রায়ানের কথা শুনতেই হয়তো ক্লিক করে তার চ্যানেলে৷

কারণ যাই হোক, রায়ান সুপারহিট৷ আর খেলনা নিয়ে তার এই ভালোবাসাতে ভর করেই এবার সে হতে চলেছে বড় ব্যবসায়ী৷ বড় কেন বলা হচ্ছে? যার ওয়ালমার্টের সঙ্গে ব্যবসা সংক্রান্ত চুক্তি হয়, তাকে বড় ব্যবসায়ী ছাড়া কি অন্য কিছু বলা যায়? ওয়ালমার্টের ২,৫০০ স্টোরে সোমবার থেকেই হাজির রায়ানের নিজস্ব ব্র্যান্ডের খেলনা, যার নাম ‘Ryan’s World’৷ অক্টোবরের মধ্যে তা আরও ছড়িয়ে পড়বে চতুর্দিকে৷

তবে রায়ানের পরিচয় কিছুটা গোপন রাখতে তার পদবি প্রকাশ্যে আনেনি তাঁর পরিবার৷ নতুন ভূমিকায় রায়ান কতটা ঝড় তোলেন এবার সেটাই দেখার৷

Advertisement
---