ইসলামকে শ্রদ্ধা জানিয়ে গেরুয়া নিশানায় বিজেপি নেতা জয়

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: প্রকাশ জনসভায় ইসলামের গুণগান গেয়ে বিপাকে বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। গেরুয়া বাহিনীর তোপের মুখে পড়তে হচ্ছে এই তারকা ব্যক্তিকে।

আরও পড়ুন- আমি কোরান পড়েছি, ইসলামকে খুব শ্রদ্ধা করি: জয়

বঙ্গ বিজেপির রাজ্য স্তরের নেতা হয়েও তিনি বলেছেন, “আমি কোরান পড়েছি, ইসলামকে শ্রদ্ধা করি।” শুধু তাই নয় ইসলাম ধর্মের গুরুত্ব বোঝানোর জন্য তিনি বলেন, “আমি জানি যদি সঠিকভাবে ইসলাম ধর্ম কেউ পালন করা তাহলে সেই ব্যক্তি ৯৫ বছর অবধি কোনও রোগ ছাড়া বাঁচতে পারে।”

- Advertisement -

দিন কয়েক আগে মহানগর কলকাতার দক্ষিণ কলকাতার মেটিয়াবুরুজের গার্ডেনরিচ এলাকার কাচ্চি মোড়ে সভা ছিল বিজেপির। উপস্থিত ছিলেন মুকুল রায়, জয় বন্দ্যোপাধ্যায় সহ অন্যান্য নেতৃত্ব। সংখ্যালঘু এলাকার সেই সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে নিজেকে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বিশেষ করে মসুলিমদের কাছের লোক বলে দাবি করেছিলেন জয়। সেই কারণেই উক্ত বক্তব্যগুলি করেছিলেন। একইসঙ্গে তিনি আরও বলেছিলেন, “আমি পার্ক সার্কাসের এক সংখ্যালঘু পাড়ায় বড় হয়েছি। আমার দেহরক্ষী, গাড়ির চালক সহ ম্যানেজার সকলেই মুসলিম। আমি তাঁদের সঙ্গেই থাকি এবং খুব স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি।”

আরও পড়ুন- “হিন্দুদের শোষন করে সংখ্যালঘু তোষণ করছেন মমতা”

সংঘ পরিবারের মতাদর্শে চলা ভারতীয় জনতা পার্টি হিন্দুত্বেই বিশ্বাসী বলে পরিচিত। পৃথক সংখ্যালঘু শাখা থাকলেও তা গুরুত্বহীন বলেই সর্বজনীন স্বীকৃত। অনেক নেতা বিভিন্ন সময়ে দেশের ধর্মনিরপেক্ষতার স্বার্থে মুসলিম সম্প্রদায়ের সুনাম করলেও সেটাকে ‘লোক দেখানো’ বলে কটাক্ষ করে সংখ্যালঘু এবং বিজেপি বিরোধী শিবির। শুধু তাই নয়, হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলিও তা নিয়ে খোঁচা দিতে ছাড়ে না।

মেটিয়াবুরুজের সভায় মুকুল রায়ের সঙ্গে জয় বন্দ্যোপাধ্যায়

এই পরিস্থিতিতে সরাসরি জনসভায় ইসলামের গুণগান গেয়ে জোর বিপাকে পড়েছেন জয়। গত ৫ ফেব্রুয়ারি জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের মেটিয়াবুরুজের জনসভার খবর Kolkata24x7-এ প্রকাশিত হওয়ার পর দেশ-বিদেশের অনেক সংবাদ মাধ্যমে তা প্রকাশিত হয়।

এরপর থেকেই বহু হিন্দুত্ববাদীর কটাক্ষ হজম করতে হচ্ছে জয়কে। বিজেপি কর্মী-সমর্থক ছাড়া শিবসেনা বা অন্যান্য গেরুয়া সংগঠনগুলি ক্রমাগত আক্রমণ করে চলেছেন অভিনেতা জয়কে। মূল সমস্যা হয়েছে ‘সঠিকভাবে ইসলাম ধর্ম কেউ পালন করা তাহলে সেই ব্যক্তি ৯৫ বছর অবধি কোনও রোগ ছাড়া বাঁচতে পারে’ এই বক্তব্য ঘিরে। সূত্রের খবর, সংঘ পরিবারের কাছে অভিযোগ জমা পড়েছে জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে।

যদিও এই বিষয়ে জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য, “আমি ভুল কিছু বলিনি। ইসলামকে বিকৃত করা হয়েছে।” ইসলামের প্রকৃত নিয়ম মেনে চললে শরীরে কোনও রোগ বাসা বাঁধবে না বলেও দাবি করেছেন তিনি। অন্যদিকে রাজ্য বিজেপি-র পক্ষ থেকেও এই বিষয়ে কেউ কোনও বক্তব্য পেশ করেনি।

Advertisement ---
---
-----