নয়াদিল্লি: জুলাই মাসের মাইনেও পেলেন না এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মীরা। শুক্রবারও বেতন হল না কর্মীদের। ঋণগ্রস্ত এই সংস্থার কর্মী সংখ্যা ২১ হাজার। তাঁদের বেতন না হওয়ায় নানারকম গুজবও রটতে শুরু করে। তবে এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে শনিবার সবার বেতন হয়ে যাবে।

এয়ার ইন্ডিয়া সূত্রে খবর, সরকার সংস্থার শেয়ার বিক্রি করার দিকে এগোচ্ছে। এই পরিস্থিতির জন্যই বেতন দিতে দেরী হয়েছে। এমনকী সংসদ সংস্থার শেয়ার বিক্রির ক্ষেত্রে সিলমোহর দিয়েছে। ঋণগ্রস্ত এই সংস্থার শেয়ার বেসরকারি সংস্থার হাতেও দিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার নিজেদের শেয়ার কমানোর দিকে এগোতেই বেতন বিলম্ব শুরু হয়ে গিয়েছে। এই সংস্থার ৫০ হাজার কোটি টাকার ওপর দেনা ছিল।

আরও পড়ুন: এয়ার ইন্ডিয়াতে উঠলে আর মিলবেনা নন-ভেজ

আগের ইউপিএ সরকার ২০১২ সালে এয়ার ইন্ডিয়াকে বাঁচাতে ৩০ হাজার কোটি টাকা বেল আউট প্যাকেজ ঘোষণা করেছিল। তারপরও ২০ হাজার কোটি টাকা দেনা নিয়ে উড়তে থাকে এয়ার ইন্ডিয়া। কিন্তু এই ব্যবসা সরকারের পক্ষে লাভজনক হচ্ছে না। যে টাকা বিমান চালিয়ে সরকারের ঘরে আসছে তা দিয়ে মূল ঋণের টাকা শোধ করা যাচ্ছে না।

আরও পড়ুন: টাটা গোষ্ঠীর হাতে ফিরতে পারে এয়ার ইন্ডিয়া

তবে এয়ার ইন্ডিয়ার মুখপাত্র ধনঞ্জয় কুমার জানান, ‘বেতন বিলম্বের অন্য কোনও কারণ নেই। শনিবার সবার বেতন দিয়ে দেওয়া হবে। প্রত্যেক মাসের ১ তারিখেই বেতন হয়। এবার একটু দেরী হয়ে গিয়েছে।’

আরও পড়ুন: এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মীদের সঙ্গে বচসায় জড়ালেন তৃণমূল সাংসদ

----
--