রাষ্ট্রপতি থেকে সাংসদ, বেতন বৃদ্ধি বিপুল পরিমাণে

নয়াদিল্লি: কারও পৌষমাস, আর কারও সর্বনাশ৷ বৃহস্পতিবারের কেন্দ্রীয় বাজেট দেখে অন্তত এমনই মন্তব্য করছেন নিন্দুকেরা৷

কেন এমন মন্তব্য ভাসছে জাতীয় রাজনীতিতে? তার কারণ, বাজেটে এদিন এমন কিছু ঘোষণা করেননি, যা দেখে স্বস্তি মিলতে পারে সাধারণ মধ্যবিত্তের৷ বাজেট দেখে যখন বেতনভুক্তরা চিন্তিত, তখন উৎসবের মেজাজ জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে৷ কারণ, সাংসদদের বেতন বাড়াতে দরাজ হয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী৷ অরুণ জেটলি বাজেটে সাংসদদের বেতন, সংসদীয় ভাতা, অফিস ভাতা ও বৈঠক সংক্রান্ত ভাতা বৃদ্ধির প্রস্তাব রেখেছেন৷ এছাড়া প্রতি পাঁচবছর অন্তর নির্দিষ্ট হারে এই বেতন ও ভাতা বৃদ্ধি করার প্রস্তাবও জেটলি রেখেছেন বাজেটে৷

তবে শুধু সাংসদদের নয়, রাষ্ট্রপতি, উপরাষ্ট্রপতি ও রাজ্যপালদের বেতন বৃদ্ধির প্রস্তাবও পেশ করা হয়েছে৷ রাষ্ট্রপতির বেতন ৫ লক্ষ, উপরাষ্ট্রপতির বেতন ৪ লক্ষ ও রাজ্যপালদের বেতন সাড়ে তিনলক্ষ করা হয়েছে৷

- Advertisement -

এই প্রস্তাব পাস হয়ে গেলে রাষ্ট্রপতির বেতন ২০০ শতাংশ বাড়বে৷ এর আগে দেড় লক্ষ টাকা বেতন পেতেন রাষ্ট্রপতি৷ উপরাষ্ট্রপতি পেতেন ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা৷ আর এই প্রস্তাব লাগু হবে ফেব্রুয়ারি ২০১৬ থেকেই৷

তাই এ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে সর্বত্র৷ সমালোচনার ঝড় উঠেছে৷ আর মুখে কুলুপ এঁটেছেন বিরোধীরা৷ রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের বক্তব্য, আসলে এর সুফল তো সবাই পাবেন৷ তাই অন্য রাজনৈতিক দলের নেতারা সকলেই চুপ৷

Advertisement ---
-----