‘বিয়িং হিউম্যান’ ইমেজ ফিরিয়ে শুটিংয়ে সলমন

ক্যামেরার সামনে তাঁর দাঁড়ানোয় প্রায় পূর্ণচ্ছেদই পড়তে চলেছিল৷ তবে হাইকোর্টের রায়ে সে শঙ্কা দূর হয়েছে৷ তাই আবার শুটিংয়ে ফিরলেন সলমন খান৷ ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ এর শুটিং যেখানে শেষ করেছিলেন, তারপর থেকে আবার কাজ শুরু করলেন৷

২০০২ সালের ‘হিট অ্যান্ড রান’ মামলার নিরিখে মুম্বইয়ের দায়রা আদালত পাঁচবছরের কারাদণ্ডের সাজা দিয়েছিল তাঁকে৷ তাঁর সাজায় প্রায়  ২০০ কোটির ক্ষতির আশঙ্কা ছিল ইন্ডাস্ট্রির৷ তবে সে রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করে প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই জামিন পেয়েছিলেন তিনি৷আর তাই ফেলে রাখা কাজে আবার ফিরলেন তিনি৷ ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ছবির আর দিন পাঁচেকের কাজ বাকী আছে৷ ছবির পরিচালক কবীর খান জানিয়েছেন, সে কাজ শেষ করতে সুপারস্টারকে নিয়ে গোটা ইউনিট আবার কাশ্মীরে৷ এই পর্বে একটি গানের শুটিং চলছে৷

যতই তিনি অভিযুক্ত হয়ে সাজাপ্রাপ্ত হোন না কেন, সলমন কিন্তু তাঁর বিয়িং হিউম্যান ইমেজ জারি রেখেছেন৷কাশ্মীরে ১৯ এপ্রিল থেকে তিনি আছেন শুটিংয়ের জন্য৷ সেখানে ৭৫ বছরের বিধবা জায়না বেগমের পরিবারের দায়িত্ব নেবেন বলে কথা দিয়েছিলেন৷ তাঁদের বাড়ি তৈরি করে দেবেন বলেও কথা দিয়েছিলেন তিনি৷ইতিমধ্যেই সে বাড়ি তৈরির জন্য চার ট্রাক মালপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন তিনি৷ কেন যে তিনি সাজা পেলে সারা দেশের অসংখ্য মানুষের মনখারাপ হয়, এইসব কাজই তার প্রমাণ দেয়৷

- Advertisement -

Advertisement
---

Comments are closed.