মুম্বই: সঞ্জয় দত্তের বায়োপিক সঞ্জুর দেখা পাওয়া যাবে শুক্রবার ২৯জুন৷ যেখানে মুখ্য ভূমিকাতেই অভিনয় করেছেন রণবীর কাপুর৷ ছবির ট্রেলারে ইতিমধ্যেই বাজিমাত করেছেন তিনি৷ কিন্তু ছবি কেমন হবে তা নিয়ে সমালোচকেরা মুখিয়ে রয়েছেন৷

তবে এই ছবিতে যে অজানা সঞ্জয় দত্তকে দেখতে পাবেন সকলে তা বলাই যায়৷ কে না জানে মাদকাসক্ত সঞ্জুর সমস্যায় জড়িয়ে পড়া দিন গুলোর কথা৷ আবার সে সব থেকে একসময় বেরিয়েও এসেছেন তিনি৷ এক ছবিতে সমগ্র সঞ্জয় দত্তকে ধরে ফেলা চারটি খানি কথা নয়৷

সঞ্জয় দত্ত- নাম এক, পর্ব অনেক৷ আর সেই পর্বের একটি কালো দিক হল তার মাদকাসক্তি৷ সে সময় তাঁর ড্রাগ নেওয়ার মাত্রা নাকি বেড়ে গিয়েছিল৷ সংবাদ মাধ্যমে ঘোরাফেরা করছে তাঁর বলা কিছু কথা৷ যেখানে তিনি জানিয়েছেন, তিনি মাদকাসক্ত ছিলেন, একদিন শুয়েছিলেন তিনি, আর একটি মশা তাঁর চারপাশে ঘোরাফেরা করছিল৷ সেই মশা একসময় তাকে কামড়ালো, তার রক্ত খেল, কিন্তু তারপর সে আর উড়তে পারল না৷ সেখানেই পড়ে গিয়ে ছটফট করতে থাকল৷

পড়ুন: কীভাবে ৩০৮ জন মহিলার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন সঞ্জয়?

আর এই ঘটনা একবার নয় বহুবার ঘটেছে৷ এতোটাই তাঁর রক্ত বিষাক্ত হয়ে গিয়েছিল যে মশারাও মারা যাচ্ছিল৷ কখনও কখনও নিজের এই অবস্থা দেখে হেসে ফেলতেন তিনি৷

জেলে থাকা প্রসঙ্গে জানান তিনি, ইয়ারওয়াড়া জেলে ছিলেন৷ সেখানে অনেক বন্দি তাঁর ভক্ত ছিল৷ সঞ্জয়ের কথা শুনে তারা খুশি হত৷ তাদের জন্যই যে জেলে সময় কাটানো সহজ হয়েছে এমনটাও জানান তিনি৷

নিজের সন্তানদের বিষয়ে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, সন্তানরা পড়াশোনা করুক, ভালো ডিগ্রী নিক, তারপর যা তাদের ইচ্ছে সেই কাজ করুক, যাতে তিনি পাশে থাকবেন৷ তিনি অঙ্কে কাঁচা হওয়ায় ক্রাফ্ট আর পেন্টিংয়ে তাদের সাহায্য করেন, কপট স্বীকারোক্তি সঞ্জুবাবার৷

----
--