ছবি-শশী ঘোষ

কলকাতা: গতবারের আই লিগটা একটুর জন্য ফসকে গিয়েছে সঞ্জয় সেনের হাত থেকে৷ মাত্র এক পয়েন্টের জন্য ট্রফি আসেনি বাগান তাঁবুতে৷ এবার তাই আরও সাবধানী৷ কোনও রকম ভুল করতে চান না বাগানের ‘হেডস্যার’৷ প্রথম ম্যাচে মিনার্ভার বিরুদ্ধে ড্র করে ডার্বিরে আগে চাপে ছিল বাগান৷ কিন্তু আই লিগের প্রথম ডার্বিতে জয় পেয়ে আত্মবিশ্বাসী মোহনবাগান৷ দু’ ম্যাচ খেলে চার পয়েন্ট নিয়ে স্বস্তিতে বাগান কোচ সঞ্জয় সেন৷

আরও পড়ুন: ডার্বিতে সবুজ-মেরুন রং গায়ে মাখল ‘ম্যাডলি বাঙালি’

Advertisement

ম্যাচ শেষে সঞ্জয়ের বক্তব্য, ‘আমরা নতুন দল নিয়ে লড়েছি৷’ খোঁচা দেওয়ার সুরে প্রতিপক্ষ কোচ বিঁধলেন৷ বাগান কোচ বলেন,‘আমরা ডার্বি ডার্বি করে স্নায়ুর চাপ বাড়াইনি আর ছেলেদের প্রতিপক্ষের ভিডিও দেখিয়েও ভয় পাইয়ে দিইনি৷’ ডার্বিতে জয় পেয়ে আত্মবিশ্বাস বাড়লেও আত্মসন্তুষ্টিকে প্রশ্রয় দিচ্ছেন না সঞ্জয়৷ রুদ্ধশ্বাস জয়ের পর তিনি জানান, ‘আমরা প্রমাণ করলাম আমরা আন্ডারডগ নই৷’ পরক্ষণেই সুর চড়িয়ে বললেন, ‘ডার্বি জেতা মানে কিন্তু আই লিগ জেতা নয়৷ আমাদের পাখির চোখ আই লিগ ট্রফিটা৷’

আরও পড়ুন: প্রাক ম্যাচ সেলিব্রেশন, ডার্বি শেষে ধূসর লাল-হলুদ

যুবভারতীর সবুজ গালিচায় বল গড়ানো থেকেই নজরের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন সনি নর্ডি৷ খালিদের আতসকাঁচের নিচেও ছিলেন বাগানের এই হাইতিয়ান মিডিও৷ কিংসলের ওপর নজর ছিল না বললেই চলে৷ সেই সুযোগের ফায়দা তুলতে প্রস্তুত ছিলেন বাগান অধিনায়ক নর্ডি৷ অধিনায়কের বাড়ানো পাসে ৩৯ মিনিটে অনবদ্য গোলটি কিন্তু করলেন নাইজিরিয়ান ডিফেন্ডার৷ কিংসলের হেড থেকে গোল আসায় চমক লেগেছে অনেকেরই৷ ডার্বি অভিষেকে প্রথম গোল করে কিংসলে মাকে তা উৎসর্গ করলেন৷ ম্যাচের নায়কও৷ নেপথ্যের নায়ক অবশ্যই নর্ডি৷ ম্যাচ শেষে কিংসলে সাংবাদিকদের জানান, ‘এর আগে ডার্বি খেলিনি৷ তাই আমার কাছে এই ম্যাচ খুবই স্পেশ্যাল৷ ডার্বির প্রথম গোল করে আমি খুব খুশি৷’

আরও পড়ুন: ‘মার্কিংয়ে ভুল হয়েছে’, পয়েন্ট হারিয়ে হতাশ খালিদ

----
--