অবসর নিলেন কিংবদন্তি ভারত অধিনায়ক

চণ্ডীগড়: শেষমেশ কঠিন সিদ্ধান্তটা নিয়েই ফেললেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সর্দার সিং৷ ২০০৬ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক হকিতে আত্মপ্রকাশ করা সর্দার বিদায় জানালেন দেশের জার্সিকে৷ বুধবার দীর্ঘ ১২ বছরের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে ইতি টানার কথা ঘোষণা করলেন সব থেকে কম বয়সে জাতীয় দলের নেতৃত্ব হাতে পাওয়া কিংবদন্তি হকি তারকা৷

আরও পড়ুন: এগিয়ে নীরাজ, খেলরত্নের দৌড়ে মীরাবাঈ, বজরংও

এশিয়ান গেমসে সোনা জিততে না পারায় নিজের হতাশা ব্যক্ত করেছিলেন সর্দার৷ ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসাবে খেলতে নেমে ব্রোঞ্জ জয়কে লজ্জার বলেই আখ্যা দিয়েছিলেন তিনি৷ তবে এখনই খেলা ছেড়ে দেওয়ার কোনও পরিকল্পনা ছিল না ৩২ বছর বয়সি তারকার৷ বরং জাকার্তা থেকে দেশে ফিরে ২০২০ অলিম্পিক পর্যন্ত খেলা চালিয়ে যাওয়ার কথা শুনিয়েছিলেন তিনি৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: গেমস রেকর্ড, হকিতে হংকংকে ২৬ গোল ভারতের

নিজের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে সময় থাকতে নতুনদের জায়গা ছেড়ে দেওয়াই উচিত মনে করেন সর্দার৷ এমনিতেই বয়সের সঙ্গে সঙ্গে গতি ও রিফ্লেক্স কমতে থাকায় চাপ বাড়ছিল সর্দারের উপর৷ তার উপর জাতীয় ক্যাম্প থেকে বাদ পড়ায় গতিবিধি আঁচ করতে অসুবিধা হয়নি দেশের হয়ে সাড়ে তিনশোর বেশি ম্যাচ খেলা সর্দারের৷

আরও পড়ুন: মহিলা হকিতেও সোনা এল না ভারতের

অবসরের কথা ঘোষণা করে সর্দার জানান, ‘আন্তর্জাতিক হকি থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেললাম৷ গোটা কেরিয়ারে যথেষ্ট হকি খেলেছি আমি৷ বারো বছর সময়টা অত্যন্ত দীর্ঘ৷ এখন ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে জায়গা ছেড়ে দেওয়া দরকার৷ পরিবার ও হকি ইন্ডিয়ার বন্ধুদের সঙ্গে আলোচনার পর আমার মনে হয় যে, এবার হকির বাইরে জীবনটাকে নতুন করে ভাবার সময় এসেছে৷ খেলা ছেড়ে দেওয়ার এটাই সঠিক সময়৷’

আরও পড়ুন: হকির জাদুগরের জন্মদিনে এশিয়ান গেমসের ফাইনালে ভারত

২০০৮ সালে সুলতান আজলান শাহ কাপে দেশের নেতৃত্ব হাতে পাওয়ার সময় সর্দার ছিলেন ভারতের কণিষ্ঠ হকি অধিনায়ক৷ ২০১৬ সালে শ্রীজেশের হাতে নেতৃত্বের ব্যাটন তুলে দেওয়ার আগে দীর্ঘ আট বছর দেশকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি৷ দু’টি অলিম্পিকে দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করা সর্দার ২০১২ সালে অর্জুন ও ২০১৫ সালে পদ্মশ্রী পুরস্কারে ভূষিত হন৷ ২০১৭ সালে দেশের সর্বোচ্চ ক্রীড়াসম্মান রাজীব গান্ধী খেলরত্ন ওঠে তাঁর হাতে৷ আন্তর্জাতিক হকি থেকে অবসর নিলেও ঘরোয়া মঞ্চে এখনও খেলা চালিয়ে যাবেন সর্দার৷

Advertisement
---