বেকারত্ব দূর করতে বিদেশী কর্মী ছাটাই সৌদিতে, সংকটে ভারতীয়রা

রিয়াধ: দেশজুড়ে বেকারত্ব বাড়ছে৷ তাই বেকারত্বে লাগাম টানতে এবার উদ্যোগী হল সৌদি সরকার৷ বিদেশী কর্মীদের পরিবর্তে দেশের কর্মীদের কাজে সুযোগ দিতে এক নয়া পলিসি গ্রহণ করেছে সৌদি৷ আর সেই পলিসিটি বাস্তবায়িত করতে অনুমোদন দিলেন শ্রম মন্ত্রী আলি বিন নাসের আল গাফিজ৷

সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যাচ্ছে, দেশের ১২টি সেক্টরে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে৷ যার জেরে সমস্যার কবলে পড়তে চলেছেন প্রায় ১২মিলিয়ন কর্মী৷ যারা প্রত্যেকেই নিজেদের দেশ ছেড়ে সৌদি আরবে এসেছিলেন কাজ করতে৷

বিভিন্ন তথ্য থেকে উঠে এসেছে, সৌদি আরবে প্রায় ৩০লক্ষ ভারতীয় বসবাস করেন৷ যারা প্রত্যেকেই ওই বারোটি সেক্টরে কর্মীর কাজে যুক্ত রয়েছেন৷ তাদের ভবিষ্যতও প্রশ্নের মুখে পড়তে চলেছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে৷

- Advertisement DFP -

চলতি বছরের আগামী সেপ্টেম্বর মাস থেকে যে সমস্ত সেক্টরে বিদেশী কর্মী নেওয়া পুরোপুরি বন্ধ হতে চলেছে, সেই সমস্ত সেক্টরের মধ্যে রয়েছে-

১) গাড়ি এবং মোটরবাইক শোরুম
২) কাপড় তৈরির কারখানা
৩) বাড়ি এবং অফিসের আসবাব তৈরির কারখানা
৪) গৃহস্থালি এবং রান্নাঘরের জিনিসপত্রের দোকান

চলতি বছরের আগামী নভেম্বর থেকে নিম্নলিখিত জায়গাগুলিতে বিদেশী কর্মী নিয়োগ বন্ধ করা হচ্ছে৷ এগুলির মধ্যে রয়েছে-

১) ইলেক্ট্রনিক জিনিস
২) হাতঘড়ি এবং দেওয়াল ঘরির দোকান
৩) অপটিক্স স্টোর

আগামী বছরের জানুয়ারিতে যেসমস্ত জায়গায় লোক নিয়োগ বন্ধ করা হবে-

১) ওষুধের দোকান এবং সাপ্লাই স্টোরস
২) বাড়ি তৈরির জিনিসপত্রের দোকান
৩) অটো স্পেয়ার পার্টস স্টোর
৪) কার্পেটের দোকান
৫) মিষ্টির দোকান

আন্তর্জাতিক শ্রম সংগঠনের সমীক্ষা অনুযায়ী, সৌদি আরবে ১৫ থেকে ২৪বছরের চাকরিহীন শ্রমিকের পরিমাণ শতকরা ৩২.৬শতাংশ৷

Advertisement
----
-----