রিয়াধ: স্বাধীনতার পর থেকেই ইসলাম রাষ্ট্র হিসাবে পরিচিতি পেয়েছে পাকিস্তান৷ বিশেষ করে ১৯৪৭ এ দেশ ভাগের সময় আলাদা ‘মুসলমান রাষ্ট্রে’র শর্তেই জন্ম হয় পাকিস্তানের৷ অথচ ওই দেশে নাকি একজনও মুসলমান নেই! হ্যাঁ, এমনটাই দাবি সৌদি আরবের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মহম্মদ বিন সলমনের৷ মধ্য এশিয়ার অন্যতম ধনী এই দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর এহেন কথায় আন্তর্জাতিক মহলে ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে জোর চর্চা৷

রবিবার এক অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে সৌদি আরবের প্রতিরক্ষামন্ত্রী সলমন বলেন, ‘‘সৌদি আরবই এশিয়ার মধ্যে একমাত্র মুসলমান রাষ্ট্র৷ পাকিস্তানে নিজেদের মুসলমান দেশ বলে দাবি করে৷ একজন সত্যিকারের মুসলমান বলতে যা বোঝায় ওই দেশে তেমন একজনও নেই৷’’ তবে এখানেই থেমে থাকেননি সৌদির এই মন্ত্রী৷ একইসঙ্গে তাঁর আরও দাবি, পাকিস্তান হল একটা ‘‘ক্রীতদাসের দেশ৷ ভারতের মতো দেশের হিন্দুদের ধর্মান্তর করে যারা মুসলমান হয়েছে তারাই পাকিস্তানে থাকে৷’’ এদের আসলে ‘হিন্দু-মুসলমান’ বলা হয় বলে এদিন দাবি করেন তিনি৷

তবে শুধু পাকিস্তান নয়৷ একই সঙ্গে ভারত ও বাংলাদেশ সম্পর্কেও মন্তব্য করেন সলমন৷ তাঁর মতে ভারত ও বাংলাদেশের মুসলমানরাও ধর্মান্তর করেই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছে৷ তবে এর পাশাপাশি তাঁর কথা অনুযায়ী ‘হিন্দু-মুসলমান’দের কর্ম দক্ষতা কিছু কম নয়৷ সেই কারণে আরবের একাধিক সরকারি অফিসে উচ্চ পদে বহাল তবিয়তে কাজ করছেন তাঁরা৷

--
----
--