বাংলায় দুর্নীতি মুক্ত গেরুয়ার লক্ষ্যে জানুয়ারিতে সভা বিজেপির

বিশ্বজিৎ ঘোষ, কলকাতা: গেরুয়া শিবিরকে দুর্নীতি থেকে মুক্ত রাখার কথা বলছে বাংলারই এক বিজেপি৷ এবং, তার জন্য তৃণমূল কংগ্রেস, সিপিএম, কংগ্রেস থেকে দুর্নীতির অভিযোগে যুক্ত নেতাদের গেরুয়া শিবিরে না নেওয়ার কথাও বলছে এই বিজেপি৷ আর, এ ভাবেও, বাংলার বিজেপিকে ‘বাঁচাতে’, আগামী জানুয়ারি মাসে বড় মাপের সভার আয়োজন হচ্ছে কলকাতায়৷

আরও পড়ুন- লালকেল্লায় আইএনএ-র স্মারক, নেতাজির পরিবারের আর্জি মোদীকে

গেরুয়া শিবিরকে ‘বাঁচানো’র জন্য পুজোর পরেই বড় মাপের এই সভা আয়োজনের কথা বলা হয়েছিল৷ তবে, গেরুয়া শিবিরে তখন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক মুকুল রায়ের যোগদানের বিষয়টিকে কেন্দ্র করে পিছিয়ে দেওয়া হয় কর্মসূচি৷ তার কারণ হিসাবে জানানো হয়েছিল, মুকুল রায়ের যোগদানের জন্য কোন পথে এগোতে চলেছে রাজ্য বিজেপি, সেই বিষয়ে কিছুটা বুঝে নেওয়ার পরেই এই সভার আয়োজন করা হবে৷ শুধুমাত্র তাই নয়৷ এমনই জানানো হয়েছে, বাংলার গেরুয়া শিবিরকে ‘বাঁচানো’ই অন্যতম লক্ষ্য৷ এবং, এই লক্ষ্য পূরণের জন্য বাংলার এই বিজেপি সভার আয়োজন ছাড়াও রাজ্য জুড়ে বিভিন্ন কর্মসূচিও গ্রহণ করছে৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন- মোদীকে পোস্ট কার্ড পাঠাচ্ছেন হাজার হাজার ট্রান্সজেন্ডার-সমকামী

এই সভার আয়োজন করছে এ রাজ্যেরই বিজেপির বিক্ষুব্ধ বিভিন্ন অংশের সদস্যদের নিয়ে গঠিত সেভ বেঙ্গল বিজেপি৷ গেরুয়া শিবিরে ‘অন্তর্দ্বন্দ্বে’র জেরে গত মে মাসে এই বিজেপির জন্ম হয়েছে৷ বাংলায় গেরুয়া শিবিরের এই অংশের সভাপতি হয়েছেন বিজেপির ন্যাশনাল কাউন্সিল থেকে ছয় বছরের জন্য বহিষ্কৃত সদস্য অশোক সরকার৷ তাঁর কথায়, ‘‘আগামী ১৬ অথবা ১৭ জানুয়ারি কলকাতায় আমরা সভার আয়োজন করছি৷ বিজেপিকে বাঁচাতে, বাংলায় দুর্নীতি মুক্ত বিজেপি গড়তে আমরা এই সভার আয়োজন করছি৷’’ রাজ্য জুড়ে গেরুয়া শিবিরের বিক্ষুব্ধ বিভিন্ন অংশের অনেকেই এই বিজেপির সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন বলেও তিনি জানিয়েছেন৷

www.kolkata24x7.com-কে অশোক সরকার বলেছেন, ‘‘তৃণমূল কংগ্রেস, সিপিএম, কংগ্রেসের দুর্নীতিতে অভিযুক্ত নেতাদের রাজ্য বিজেপির বিভিন্ন পদে বসানো হচ্ছে৷ বাংলায় এ ভাবে বিজেপির ক্ষতি আমরা হতে দেব না৷ বিজেপিকে বাঁচানোই আমাদের লক্ষ্য৷’’ এবং, তার জন্য আন্দোলনের কর্মসূচি জারি রয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন৷ কিন্তু, গেরুয়া শিবিরে কেন এই ধরনের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে? সেভ বেঙ্গল বিজেপির সভাপতি বলেন, ‘‘১৫, ২০, ৩০ বছর ধরে যাঁরা বিজেপিতে আছেন, বর্তমান রাজ্য নেতৃত্ব তাঁদের বিভিন্ন ভাবে বসিয়ে দিচ্ছেন৷ তাঁদের কাজ করতে দেওয়া হচ্ছে না৷’’ বাংলায় সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির জন্য বর্তমান রাজ্য নেতৃত্বের কর্মসূচি যথাযথ নয় বলেও জানানো হয়েছে৷

Advertisement
---