বিপাকে মুখ্যমন্ত্রী, উস্কানিমূলক মন্তব্যের দায়ে নোটিশ ধরাল আদালত

প্রতীকী ছবি

লখনউ : বিপাকে উত্তরপ্রদেশ সরকার ও পুলিশ প্রশাসন৷ সুপ্রিম কোর্টের নোটিশ এসে পৌঁছল মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের কাছে৷ তাঁর বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক মন্তব্য করা ও বক্তব্য রাখার অভিযোগ আনা হয়েছে৷
সোমবার এই নোটিশ পায় যোগী সরকার৷ পাশাপাশি, নোটিশ ধরানো হয়েছে রাজ্যের পুলিশ বিভাগকেও৷

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে আসাদ হায়াত এবং পারভেজ নামের দুই যুবক সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়ে এলাহাবাদ হাইকোর্টে আবেদন করেন। তাঁদের দু’‌জনেরই দাবি ছিল, ২০০৭ সালে গোরক্ষপুরে সংঘর্ষ হওয়ার পেছনে যোগী আদিত্যনাথের উস্কানিমূলক বক্তব্যই দায়ী। সেই সময় তিনি ওই এলাকার সাংসদ ছিলেন এবং তাঁকে গ্রেফতারও করা হয়েছিল।

পড়ুন: বকরি ইদে কোনও গোহত্যা চলবে না : মুখ্যমন্ত্রী

- Advertisement -

কিন্তু উত্তরপ্রদেশ সরকার এলাহাবাদ হাইকোর্টে যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে৷ উত্তরপ্রদেশ সরকারকে নোটশ জারি করে চার সপ্তাহের মধ্যে তার জবাব দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত৷ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র এই নোটিশ ইস্যু করেন৷ এই মামলায় এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আবেদন জানানো হয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে। প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে নোটিশ জারি করেন৷

এর আগে, গোরক্ষপুরে সংঘর্ষ হওয়ার ঘটনায় ১১ দিন পুলিশ হেফাজতে ছিলেন যোগী আদিত্যনাথ৷ তাঁর বিরুদ্ধে ৩০২, ৩০৭, ১৫৩এ, ৩৯৫ ও ২৯৫ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়৷ এই মামলা পরে সিআইডির হাতে তুলে দেওয়া হয়, যারা তদন্ত করে প্রমাণ করে ভয়েস রেকর্ডিংয়ে যোগী আদিত্যনাথের গলার স্বরই রেকর্ড করা হয়েছে৷

চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি এলাহাবাদ হাইকোর্ট যোগী আদিত্যনাথ সহ ৮ জন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে করা আবেদন খারিজ করে দেয়। এরপরই দুই আবেদনকারীদের মধ্যে একজন, পারভেজ সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়।

Advertisement ---
---
-----