সুপ্রিম কোর্টে মামলা ৩৫০ সেনার

নয়াদিল্লি: আর্মড ফোর্সেস স্পেশাল পাওয়ারস অ্যাক্ট (AFSPA)-কে তছনছ করার অভিযোগ উঠেছিল ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে৷ জম্মু-কাশ্মীর, মনিপুর থেকে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়৷ অভিযোগ, AFSPA-কে হাতিয়ার করে সেনার অত্যাচার বাড়ছে৷ ভুয়ো সংঘর্ষ ঘটিয়ে সাধারণ মানুষকে আতঙ্কে রাখছে সেনা৷ সেই মামলাকে
চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে পাল্টা মামলা দায়ের করল ৩৫০ ভারতীয় সেনা৷ যা গ্রহণ হল সুপ্রিম কোর্টে৷

প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র, বিচারতি এম খানউইলকরের বিশেষ বেঞ্চ মামলাটি গ্রহণ করে৷ জরুরী ভিত্তিতে মামলার শুনানি হবে বলেও জানায় শীর্ষ আদালত৷ সেনাদের দায়ের করা মামলায় অভিযোগ, জম্মু-কাশ্মীর বা মনিপুর AFSPA অন্তর্ভুক্ত, স্পর্শকাতর এই দুই রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা বজায় থাকে AFSPA-অ্যাক্ট প্রয়োগ করেই৷ সেই প্রশিক্ষণই পেয়েছে ভারতীয় সেনা৷ কর্তব্যরত সেনা যদি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য পদক্ষেপ করে, তা কীভাবে আইন বিরুদ্ধ?

পড়ুন:লালকেল্লার আড়মোড়া ভাঙল সেনার কুচকাওয়াজে

- Advertisement -

জম্মু-কাশ্মীরে সেনার গুলিতে নাগরিক মৃত্যুর হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের হয়৷ সেনার পক্ষ থেকে জানানো হয়, ঘটনার সময় কর্তূব্যরত ছিলেন প্রত্যেক সেনা৷ ৩৫০ সেনার হয়ে মামলা লড়ছেন আইনজীবী ঐশ্বর্য ভাটি৷ মনিপুরের ৬ পুলিশ কমান্ডো দায়ের করা মামলায় নিজেদের নাম তালিকাভুক্ত করে৷ ঘটনার সূত্রপাত ২৭ জানুয়ারি৷ সোপিয়ানে সেনার গুলিতে তিন নাগরিকের মৃত্যু হয়৷ সেনার বিরুদ্ধে জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হয়৷

মামলার মোর ঘোরে তখনই, যখন সেনার তরফে জানান হয় AFSPA অন্তর্ভুক্ত রাজ্যে সেনার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হোলেও কেন্দ্রের ছাড়পত্র প্রয়োজন৷ এরপর বহু বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষে সেনাদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশও করে কাশ্মীর-মনিপুরের সাধারণ মানুষ৷ সবমিলিয়ে সেনার বিরুদ্ধে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়৷তবে, কর্তব্যরত সেনারা AFSPA অ্যাক্ট মেনেই কাজ করছে বলে দাবি৷ যা খতিয়ে দেখছে সুপ্রিম কোর্ট৷ ২০ অগাস্ট মামলার শুনানি৷

Advertisement
---