কোন ঋতুতে কী ফ্যাশন, নির্ভর করছে আপনার মুডের উপর

ইয়ং জেনারেশনের গতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে ফ্যাশন এখন আর স্ট্যাটিক কনসেপ্ট নয়৷ সময় ও ঋতুর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ক্রমশ বদলাতে থাকে ফ্যাশন স্টেটমেন্ট৷ গ্রীষ্ম থেকে বর্ষা৷ ওয়ার্ডরোবে থাকতে হবে সময়োপযোগী পোশাক৷ ঋতুর সঙ্গে তাল মিলিয়ে ঠিক কী রকম হওয়া উচিত আউটলুক?

‘ঋতু’ এবং ‘ফ্যাশন’ এই দুইয়ের সম্পর্ক অত্যন্ত নিবিড়৷ দৈনন্দিন জীবনে ফ্যাশন কিন্তু অনেকটাই নির্ভর করে মানুষের ওই দিন বা ওই নির্দিষ্ট সময়ের মুডের উপর৷ পোশাক বা মেক-আপ সবটাই সেখানে গুরুত্বপূর্ণ৷ প্রকৃতি যেমন বদলায়, তেমনি মানুষের মনেও বদল আসে৷ আর সেই মনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমাদের ফ্যাশনের পথ চলা৷ ঋতুরঙ্গ থেকে ছ’ঋতুকে ধার নিয়েই হালফিলের ফ্যাশন মন্ত্র৷

বর্ষাকালে ছেলে মেয়ে প্রত্যেকের অতিরিক্ত ফিটেড জামাগুলোকে এড়িয়ে চলাই উচিৎ৷ ‘লুজ ফিটেড টপস’, ‘ক্রপ টপস’, ট্যাঙ্ক টপস এখন ‘ইন’৷ আর এই সময় কিন্তু হাল্কা এবং গাঢ়, দু’ধরণের রং-এর জামা পরলেই কোনও অসুবিধা নেই৷ কারণ এই সময়টাকে ‘গ্লুমি’ না ‘ভাইব্রেন্ট’হিসেবে দেখবেন, সেটা সবটাই কিন্তু নির্ভর করছে আপনার নিজের মুডের উপর

- Advertisement -

আকাশের মুখ এখন অবশ্য গোমড়া৷ যখন তখন বৃষ্টির ছঁটা৷ তাই এই প্রতিবেদন শুরু হোক বর্ষাকাল দিয়েই৷

season2
ছবি-শিলাদিত্য দত্ত

‘মনসুন’, এই ঋতুকে নানা মানুষ নানা চোখে দেখেন৷ সারাক্ষণ আকাশ মেঘলা৷ যেকোনও সময় বৃষ্টি এসে ভাসিয়ে নিয়ে যাচ্ছে গোটা শহরকে৷ তীব্র যানজট! রাস্তায় নামলে জামাকাপড়-জুতো সবকিছুই চপচপে ভেজা৷ জুতো তো একবার ভিজলে পাঁচ-দিনের আগে শুকোচ্ছেই না৷ উফ! অসুবিধার শেষ নেই৷ কিন্তু এই ঋতুই যে আবার জমিয়ে প্রেম করার আদর্শ সময়, সেব্যাপারে আমাদের বাপ-ঠাকুর্দারাও একমত হবেন৷ বয়ফ্রেন্ড বা গার্লফ্রেন্ডকে ইম্প্রেস করার জন্য এই সময় ফ্যাশনের কিন্তু কোনও অভাব নেই৷ আর এই ঋতুতে নিজের ভিতরের ‘সেক্সি’ সত্ত্বাটাকে বাইরে আনারও কিন্তু আদর্শ সময়৷ মেয়েরা অফিস-স্কুল বাদে নিজেদের ফর্ম্যাল পোষাকগুলি তুলেই রাখতে পারেন৷ জিন্সগুলোকে আলমারিতে তুলে বরং বের করুন নিজের ডেনিম এবং কটনের শর্টসগুলি৷ শর্টসে যারা কমফর্টেবল নয়, তারা পড়ুন ‘স্কার্টস’ বা ‘কেপ্রি’৷ বর্ষাকালে ছেলে মেয়ে প্রত্যেকের অতিরিক্ত ফিটেড জামাগুলোকে এড়িয়ে চলাই উচিত৷ ‘লুজ ফিটেড টপস’, ‘ক্রপ টপস’, ট্যাঙ্ক টপস এখন ‘ইন’৷ আর এই সময় কিন্তু হাল্কা এবং গাঢ়, দু’ধরনের রং-এর জামা পরলেই কোনও অসুবিধা নেই৷ কারণ এই সময়টাকে ‘গ্লুমি’ না ‘ভাইব্রেন্ট’হিসেবে দেখবেন, সেটা সবটাই কিন্তু নির্ভর করছে আপনার নিজের মুডের উপর৷

বর্ষা চলে যেতেই ধীরে ধীরে আকাশ পরিষ্কার হতে শুরু করে৷ উজ্জ্বল নীল রঙ গাঢ় থেকে আরও গাঢ়তর হয়৷ মানুষের মনের রঙ বদলানোটাও তাই স্বাভাবিক এই সময়৷ বিশেষ করে বাঙালিদের৷ সকালবেলা জানলার বাইরের আকাশ দেখেই নিমেষে বলে দেওয়া যায় এ হল শরৎের আকাশ৷ প্রকৃতিও যেন ধীরে ধীরে উৎসবের আমেজে নিজের রঙ মেলে ধরতে থাকে৷ দুর্গাপুজো ,লক্ষ্মীপুজো বা কালিপুজো ছাড়াও গোটা সিজনটাই যেন ফ্যাশনের জন্য আদর্শ সময়৷ তবে ঠিক কী ধরণের পোষাক পরবেন, সেটা সবটাই নির্ভর করে আপনার নিজস্বতার উপর৷ ফ্যাশনের সবচেয়ে মূল বিষয় হল ‘কমফর্ট’৷ ট্রেন্ডি পোশাক অবশ্যই পরবেন, কিন্তু অন্য কারোকে নকল করে ড্রেস পরার দিন কিন্তু এখন শেষ৷ বর্তমান সময়ের ফ্যাশন সচেতন নারী বা পুরুষরা কিন্তু জানেন, ঠিক কোন সময় কোন আউটফিটটা একদম পারফেক্ট তাদের জন্য৷ পুজোর সময় ছেলে মেয়েদের ইস্টার্ন ওয়্যার পরার দিকে অবশ্যই ঝোঁক বেশি থাকে৷ এখন কিন্তু শাড়ি পরার ট্রেন্ড আবার ফিরে এসেছে৷ শুধু পুজোর সময় নয়, যেকোনও অনুষ্ঠানেই শাড়ি পরতে এখন মেয়েরা বেশি পছন্দ করেন৷ ‘সুতির ইক্কত’, ‘পাটলি পাল্লু’, ‘জর্জেটের হাফ অ্যান্ড হাফ’, ‘গাদওয়াল’, ‘অসম শিল্ক’, ‘জারদৌসি’, ‘কাঞ্জিভরম’ শাড়ি এখন সবারই যথেষ্ট পছন্দের৷ এছাড়া অল টাইম ইন তাঁত এবং সিল্ক তো রয়েছেই৷

‘চেকস’, ‘টার্টান্স’-এর ট্রেন্ড তো এভারগ্রিন৷ মেয়েদের জন্য ঢিলেঢালা, ব্যাগি টার্টান স্কার্টস দারুণ৷ হালকা শীতে ‘লেয়ারিং’ এখন নতুন কনসেপ্ট চলছে

season3
ছবি-শিলাদিত্য দত্ত

তবে যারা লম্বা তাদের জন্য সবসময়েই একটা অ্যাডভান্টেজ থেকে যায়৷ যেমন মেয়েরা লম্বা হলে ওয়েস্টার্ন ওয়্যার যথেষ্ট মানানসই তাদের জন্য৷ যেমন ডেনিম কেপ্রির সঙ্গে প্যাস্টেল শেডের লম্বা ঝুলের টপ পরুন৷ ফ্রি-ফ্লোয়িং হলে খুবই ভালো৷ ড্রেস বা রাপার অন স্কার্টও পরতে পারেন৷ এখন অ্যাসিমেট্রিক্যাল ড্রেসের খুব কদর৷ সেটাও ট্রাই করতে পারেন৷ পাশাপাশি জাম্পস্যুট এখনকার দিনে একটি ট্রেন্ডি অপশন৷

পুজো শেষ হতেই হাওয়ার বদল ধীরে ধীরে শুরু হয়ে যায়৷ উত্তরের ঠাণ্ডা আবহাওয়া ধীরে ধীরে জাঁকিয়ে বসলে অলসতাও বাড়তে থাকে৷ এই সময়টা কিন্তু ফ্যাশনের জন্য একেবারে সঠিক সময়৷ ‘চেকস’, ‘টার্টান্স’-এর ট্রেন্ড তো এভারগ্রিন৷ মেয়েদের জন্য ঢিলেঢালা, ব্যাগি টার্টান স্কার্টস দারুণ৷ হালকা শীতে ‘লেয়ারিং’ এখন নতুন কনসেপ্ট চলছে৷ আর শীত মানেই গাঢ় বা উজ্জ্বল রঙ-এর পোষাক পরার সময়৷ সঙ্গে দারুণ কিছু স্কার্ফ, অ্যাক্সেসারিজ এবং ব্যাগের কম্বিনেশনে আপনাকে কোনও সেলিব্রিটি থেকে কিন্তু কোনও অংশে কম লাগবে না৷

এরপর রয়েছে গরম এবং বসন্ত কাল৷ এই সময় নিজেকে ‘কুল’ এবং সুস্থ রাখাটাই প্রধান ফোকাস হওয়া উচিৎ৷ অতিরিক্ত গরমেও অফিস বা অন্যান্য কাজে তো আপনাকে বাইরে বেরোতেই হবে৷তাই সেই গরমের সঙ্গে মানানসই পোষাক এবং মেক আপটা অত্যন্ত প্রয়োজন৷ এদেশের ১২ মাসের মধ্যে গরমটাই সর্বাধিক৷ তাই এই সময়টা যে একেবারে ফ্যাশনেবল পোষাক পরা ছেড়ে দিতে হবে, তা নয়৷ ভাগ্য ভালো গরমে বিয়েবাড়ির নিমন্ত্রণ তুলনায় কম পাওয়া যায়৷ সেটা একদিক থেকে অবশ্যই সুখবর৷ কারণ প্যাচপ্যাচে গরমে এরকম অনুষ্ঠানে যেতে হলে ঠিক কী পরবেন, সেটাই ঠিক করাটা বেশ কঠিন হয়ে পড়ে৷ আজকাল আবার সারা দেশজুড়ে ‘সামার পুল পার্টি’র খুব চল৷ সেখানে সময় পেলে অবশ্যই যাবেন৷ মন চাইলে পুল-সাইডে সাহসী পোষাক পরতেও কোনও ক্ষতি নেই৷ যেমন আকাশি নীল হল্টারনেক বিকিনি টপের সঙ্গে ফ্লোরাল প্রিন্টের শর্টস এখনকার সামার পার্টির জন্য যথেষ্ট ‘ইন’৷

 

Advertisement ---
---
-----