সাজপোশাক থেকে শুরু করে ফিট শরীর— সবেতেই তাঁরা আমার-আপনার রোল মডেল। তবে পোশাক তো কেনাই যায়। কিন্তু তা কী মানাবে আপনাকে। দীপিকা-বিপাশার মতো টোন্‌ড বডি পাওয়ার একটা ইচ্ছে মনে হয় তোমাদের সবার মনেই কম-বেশি আছে! তা, স্টারদের এমন ফিট শরীরের রহস্যটা কী? কী-কী করেন তাঁরা তাঁদের নিত্যদিনের রুটিনে? বলি-সেলেবদের সেরকমই কিছু ফিটনেস টিপস আজ

Advertisement

শিল্পার শেট্টি
বলিউডের অন্যতম এই সুন্দরী যে আজকাল শরীর সুস্থ রাখতে যোগাসনের প্রচারে অনেক কিছু করছেন তা তো তোমরা জানোই। শিল্পা কিন্তু ডায়েটিংয়ে বিশ্বাসী নন, বরং সঠিক খাবার খাওয়ারই পক্ষপাতী তিনি। যোগাসনের পাশাপাশি সপ্তাহে দু’-তিন দিন করেন স্ট্রেংথ ট্রেনিং এবং কার্ডিও। শরীর-মন শান্ত রাখার জন্য রোজকার রুটিনে দশ মিনিট শিল্পা রেখেছেন মেডিটেশনের জন্য।

দীপিকা পাড়ুকোনের 

দীপিকা এই মুহূর্তে বলিউডের ফিটেস্ট অভিনেত্রীদের অন্যতম। বাবার সৌজন্যে ছোটবেলা থেকেই ব্যাডমিন্টন খেলেছেন— ফলে ছোট থেকেই ফিট। এখনও তাঁর ফিটনেস রুটিনে আছে পাইলেটস, কার্ডিও, স্ট্রেংথ ও ওয়েট ট্রেনিং এবং যোগাসন। তবে নিজের প্রিয় কোনও খাবারই কিন্তু বাদ দেননি। শুধু নিয়ম মেনে প্রত্যেক ঘণ্টায় ডায়েটে রেখেছেন ফল, প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেটের ব্যালেন্স।

বিপাশা বসু

বিপাশার শরীরের স্ট্রাকচার প্রায় সব মেয়েদেরই অনুপ্রেরণা। তবে এই শরীর ধরে রাখার জন্য কিন্তু প্রচুর খাটতে হয় তাঁকে। তার মধ্যে ট্রেডমিল, সাইক্লিং, কিক বক্সিং তাঁর প্রিয়। বিপাশার পরামর্শ, প্রচুর জল খাও। এর ফলে একদিকে যেমন শরীর ভিতর থেকে পরিষ্কার হবে, তেমনই ত্বকও হবে চকচকে। এ ছাড়া, দিনে ৭-৮ ঘণ্টা নিয়ম করে ঘুমোন তিনি।

অক্ষয় কুমার

অক্ষয়ের নিয়ম মেনে চলা জীবনের জন্য তাঁকে সকলেই চেনেন। রোজ ঘড়ি ধরে ভোর ৫টায় উঠে রাত ৯টায় ঘুমিয়ে পড়েন তিনি। তার সঙ্গে মার্শাল আর্টস, নিয়মিত এক্সারসাইজ় এবং সঠিক পরিমাণে খাওয়া তো আছেই। অক্ষয়ের পরামর্শ, দিনের শেষ খাওয়াটা সেরে নাও সন্ধে ৭টায়, কারণ ঘুমনোর আগে শরীরের অন্তত ৩-৪ ঘণ্টা প্রয়োজন খাবার হজম করতে।

 হৃতিক রোশন

বলিউডের ‘গ্রিক গড’ যাকে বলে ‘কমপ্লিট প্যাকেজ’! হৃতিকের ফোকাসে থাকে স্ট্রেংথ, স্ট্যামিনা, সহনশীলতা ও নমনীয়তা। নিয়মিত এক্সারসাইজ় করেন তিনি। পাশাপাশি রোজকার ডায়েটে রয়েছে ৮-১০ গ্লাস জল, সবুজ শাক-সবজি, মাছ, মাংস, ডিম, ব্রাউন ব্রেড ও প্রোটিন শেক।

----
--