মেডিক্যালের গণ কনভেনশন ভীড়ে ঠাসা, তবু অধরা সমাধান সূত্র

ছবি- মিতুল দাস

গৌতমী সেনগুপ্ত, কলকাতা: অনশনরত ২১ পড়ুয়ার পাশে দাঁড়াল শহর৷ পাশে দাঁড়ালেন বিদ্বজনেরা৷ মেডিক্যালের আন্দোলনরত পড়ুয়া থেকে প্রাক্তনরা সমাবেশ সফল করেছেন৷ তবে সেই সমাবেশ থেকে কি সমাধান সূত্র মিলল? প্রশ্ন কিন্তু থেকেই যাচ্ছে৷

রবিবার মেডিক্যাল কলেজে অনশনরত পড়ুয়াদের সমর্থনে আয়োজিত গণ কনভেনশনের হল ছিল ভীড়ে থিক খিক৷ যেন ছোটখাটো ব্রিগেড৷ উপস্থিত ছিলেন প্রথম সারির বুদ্ধিজীবী, ছাত্র ছাত্রী সহ সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ৷ স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রীর কাছে গণ পিটিশন জমা দিতে পাতার পর পাতা সইও এল৷ কিন্তু এরই মাঝে কোথাও বলা হল না, ঠিক কোন দিকে যাবে বিক্ষোভ কর্মসূচি৷ কারণ, সমাধান সূত্রটাই ছিল আলোচ্য বিষয়৷

গণ কনভেনশনে বক্তব্য পেশ করেন মেডিক্যাল কলেজের প্রাক্তনী ও পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, কৌশিক সেন, অরুণাভ ঘোষ,বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য সহ অনেকে৷ বক্তব্যে জোর ছিল, আলোচনা ছিল,উত্তেজনা ছিল, আশার আলোও হয়ত ছিল৷ শুধু অধরা রয়ে গেল একটি বিষয়, আর তা হল-ঠিক কতদিন চলবে এই অনশন? কয়েকশো মানুষ পাশে দাঁড়ালেও অনশন ভঙ্গের পথ বেরোল না৷
সমাবেশে বিশিষ্টদের চেয়ে বেশি সংখ্যায় ছিলেন সাধারণ মানুষ৷ যাঁরা দাবি তুললেন আজকেই যেন কোনও একটি ইতিবাচক পদক্ষেপ নেওয়া হয়৷ তবে গণ কনভেনশনকে সার্থক করতে বিক্ষোভরত পড়ুয়ারা আজই কোনও পদক্ষেপ নিতে চাইলেন না৷ কনভেনশনের পর ধর্মতলা পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিলের প্রস্তুতি নেওয়া হল৷ সোমবার গণ পিটিশন জমা পড়বে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠির কাছে৷

- Advertisement -

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন অসংখ্য মেডিক্যালের প্রাক্তনী৷ যাঁরা বলেছেন এই পিটিশনে কাজ না হলে তাঁরাও অনশনে বসবেন৷ সমাবেশ থেকে দাবি উঠেছে ইতিমধ্যে যেন রাজ্যের বিরুদ্ধে স্বত:প্রণোদিত মামলা করা হয়৷ এই মামলার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখবেন বলে জানিয়েছেন আইনজীবী অরুণাভ ঘোষ৷ এদিন মেডিক্যাল কলেজের বাইরেও ছিল উপচে পড়া ভীড়৷ এরই মাঝে অনশনরত ওই ২১জন পড়ুয়ার সাথে কথা বলার চেষ্টা করা হলেও, তারা এতটাই দুর্বল, যে কথা বলার পরিস্থিতিতে ছিলেন না৷

গন কনভেনশন নিয়ে একটা আশা ছিল নাগরিক মনে৷ আশা রেখেছিলেন অনশনরত দেবাশিস, অনিকেতদের বাবা মায়েরা৷ কোথাও গণ কনভেনশনের সমাবেশ মারাত্মক সাফল্য আনলেও, প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে মেডিক্যালের চলতি অনশনের ভয়াবহতা নিয়ে৷

Advertisement ---
-----